রাজনীতিসর্বশেষ

দলকে রক্ষা করতেই রওশন এরশাদ দায়িত্ব নিয়েছেন: কাজী মামুন

জাতীয় পার্টিতে রওশনপন্থীদের অন্তর্বর্তীকালীন মহাসচিব কাজী মামুনূর রশিদ বলেছেন, এরশাদের মৃত্যুর পর যিনি দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন তার ব্যর্থতার কারণে পার্টি আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে গেছে। দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তিনি দলটির ভরাডুবি ঘটিয়েছেন। এ বিপর্যয়ের হাত থেকে দলকে রক্ষা করতেই রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।
শনিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে মোহাম্মদপুর টাউন হলে কেন্দ্রীয় জাতীয় ছাত্র সমাজের প্রতিনিধি সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
ছাত্রসমাজের সহ-সভাপতি নকিবুল হাসান নিলয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় কাজী মামুন বলেন, জিএম কাদের এবং চুন্নু, এরশাদের রেখে যাওয়া আমানত খেয়ানত করেছেন। তারা মুনাফিক, মিথ্যাবাদী এবং ওয়াদা বরখেলাপকারী। পার্টির সবার সর্বসম্মতিক্রমে রওশন এরশাদ এ মুনাফিকদের দল থেকে অব্যাহতি দিয়েছেন। বেইমানদের স্থান জাতীয় পার্টিতে নেই।
জাপার নবনিযুক্ত মহাসচিব বলেন, জিএম কাদের নিজ স্বার্থে দলের স্বার্থকে বিসর্জন দিয়েছেন। শুধুমাত্র তার স্ত্রীকে সংসদ সদস্য করার জন্য দেশের লাখো নেতাকর্মীর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছেন। স্বঘোষিত জনবন্ধু জিএম কাদের দেশবাসীর কাছে প্রতারক হিসেবে চিহ্নিত হয়েছেন।
প্রতিনিধি সম্মেলনে নকিবুল হাসান নিলয়কে আহ্বায়ক, যুগ্ম আহ্বায়ক এসএম রেজাউল ইসলাম হাসিব ও মৃধা মো. মিরাজুল ইসলাম রাজ, এরফান আহমেদ এবং আবু সাঈদ লিওনকে সদস্য সচিব করে ১০১ সদস্য বিশিষ্ট জাতীয় ছাত্র সমাজের আহ্বায়ক কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে।
প্রতিনিধি সভায় আরও বক্তব্য রাখেন হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের ছেলে রাহগীর আল মাহি সাদ এরশাদ, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য গোলাম সারোয়ার মিলন, সাবেক রাষ্ট্রপতির উপদেষ্টা রফিকুল হক হাফিজ, জাপার নবনিযুক্ত মুখপাত্র ও প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভ রায়, প্রেসিডিয়াম সদস্য শফিকুল ইসলাম সেন্টু, ভাইস চেয়ারম্যান ইয়াহিয়া চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব ফখরুল আহসান শাহাজাদা প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *