পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের বাছাইয়ের ফিরতি লেগে কাতারের বিপক্ষে পাত্তাই পেল না বাংলাদেশ। শুক্রবার দোহার আব্দুল্লাহ আল খলিফা স্টেডিয়ামে ৫-০ গোলে জিতেছে কাতার।

শুরু থেকেই ম্যাচ জুড়ে দাপট ছিল কাতারের। অন্যদিকে বাংলাদেশের ‘ইচ্ছে’ ছিল কম গোল খাওয়ার। তবে শেষমেশ সেই রক্ষা আর হয় নি জেমি ডের দলের।

খেলার প্রথমার্ধেই দুই গোল দেয় কাতার। বাংলাদেশের জামাল ভুইয়া, সোহেল রানা, ইব্রাহিম, সাদ উদ্দিন, তপু বর্মন, বিপলু, বিশ্বনাথ, সুফিল, রিয়াদুলর একবারও গোছানো ফুটবল খেলতে পারেননি।

হাই ভোল্টেজ ম্যাচে গোলপোষ্টে জিকোর উপর দিয়ে ঝড় গেছে। এই গোলকিপার তার ক্যারিয়ারে একটি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা নিয়ে কাল দ্বিতীয় ম্যাচ খেলতে পারলেন এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন কাতারের বিপক্ষে।

১০টি শট ঠেকিয়েছেন তিনি। একটি শট সাইডবারে লেগেও ফিরে আসে। কাতার যতটা ভালো খেলেছে তারচেয়েও বেশি ভুল করেছে বাংলার ফুটবলাররা। রক্ষণ ছিল যাচ্ছেতাই। আর একটু হলেই তপু বর্মন আত্নঘাতী গোল করে ফেলেছিলেন। গোল করার মতো কোনো সুযোগই পায়নি বাংলাদেশ। ফুটবলাররা কাউন্টার আক্রমনে গেলেও বার বার ভুল পাস দিয়ে নিজেরাই আক্রমন নষ্ট করেন। কাতারের গোলকিপারকে একবারও বল ধরতে হয়নি।

ভুল পাসের ছড়াছড়িতে গোলকিপার জিকো শক্ত অবস্থানে থাকলেও কতোবার ঠেকাবেন তিনি। ৭২ মিনিটে বক্সে আল ময়েজকে ফাউল করেন বিপলু, পেনাল্টি দেন রেফারী। আল ময়েজ গোল করেন ৩-০।

গতবছর এশিয়ান কাপে আল ময়েজ ৯ গোল করেছিলেন। সুদানী বংশোদ্ভুত কাতারের এই ফরোয়ার্ড ৭৮ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোল করেন ফাঁকায় দাঁড়িয়ে ৪-০। তপুকে তুলে নিয়ে কোচ জেমি ইয়াসিনকে, সুফিলের পরিবর্তে জীবন, বিপলুর পরিবের্ত সুমন রেজাকে নামান কোচ। যোগ হওয়া সময়ে পঞ্চম গোল করেন আকরাম আফিফ ৫-০। গত বছর ঢাকায় হোম ম্যাচে কাতার ২-০ গোলে হারায় বাংলাদেশকে।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »