নাভালনির দলকে আদালতে উগ্রপন্থী ঘোষণার চেষ্টা

রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক বলে পরিচিত রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সই নাভালনির সংস্থা ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’-কে উগ্রপন্থী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করা হতে পারে। বার্তা সংস্থা এএফপি’র প্রতিবেদনে এই আশঙ্কার কথা জানানো হয়।

মস্কোর একটি আদালতে নাভালনির সংস্থাটিকে ‘সন্ত্রাসবাদী ও উগ্রপন্থী’ সংগঠনের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করার আবেদন জানিয়েছে সরকার। ইতিমধ্যে আদালতের নির্দেশে নিজেদের সমস্ত কর্মসূচি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছে ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’ বা এফবিকে। তবে সংস্থাটিকে এখনও উগ্রপন্থী তকমা দেওয়া হয়নি বলে সোমবার জানিয়েছে আদালত।

বর্তমানে রাশিয়ার ‘সন্ত্রাসবাদী ও উগ্রপন্থী’ সংগঠনের তালিকায় ইসলামিক স্টেট, আল কায়দার মতো ৩৩টি সংগঠন রয়েছে। নাভালনির রাজনৈতিক গোষ্ঠী ও দুর্নীতিবিরোধী ফাউন্ডেশনকে ‘উগ্রবাদী’ সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করা হলে সেগুলো রুশ কর্তৃপক্ষের কাছে জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস), আল-কায়েদা ও তালেবানের মতো বলে বিবেচিত হবে।মানবাধিকার সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, নাভালনির রাজনৈতিক ও দুর্নীতিবিরোধী নেটওয়ার্ক যদি সত্যিই নিষিদ্ধ করা হয়, তবে তা হবে সোভিয়েত পরবর্তী রাশিয়ায় মতপ্রকাশের স্বাধীনতা ও সংগঠন করার অধিকারের প্রতি অন্যতম গুরুতর আঘাত। সেই তালিকায় ‘অ্যান্টি করাপশন ফাউন্ডেশন’-কে অন্তর্ভুক্ত করলে কার্যত কোণঠাসা হয়ে পড়বেন প্রেসিডেন্ট পুতিনের প্রবল সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনি।

গত আগস্ট মাসের ২০ তারিখ সাইবেরিয়ার টমস্ক থেকে বিমানে মস্কো ফিরছিলেন নাভালনি। মাঝ আকাশে আচমকাই অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি।টমস্ক শহরে বিমানের জরুরি অবতরণ করিয়ে শুরু হয় চিকিৎসা। নাভালনি ঘনিষ্ঠদের প্রাথমিক ধারণা, ওমস্ক বিমানবন্দরে তাঁর চায়ে বিষ মেশানো হয়েছে। চিকিৎসকরা জানান, নাভালনির স্নায়ুতন্ত্র ক্রমশ দুর্বল হয়ে পড়ছিল। বার্লিনে তাঁর চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে ওঠেন তিনি। রাশিয়ায় ফিরতেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা হয়।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »