মমতাকে পদত্যাগের জন্য প্রস্তুত থাকতে বললেন অমিত শাহ

পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়কে পদত্যাগ করতে প্রস্তুত থাকতে বলেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজেপির সাবেক সভাপতি অমিত শাহ। রবিবার (১১ এপ্রিল) রাজ্যের বসিরহাট দক্ষিণে দলীয় নির্বাচনী প্রচারণায় এসে এক জনসভায় তিনি এ কথা বলেন।

পশ্চিমবঙ্গে চলমান বিধানসভা নির্বাচনে গত শনিবার চতুর্থ দফার ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এদিন রাজ্যের কুচবিহার জেলার শীতলকুচিতে তৃণমূল ও বিজেপির কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষে অন্তত চারজন নিহত হয়েছেন। ভোটের লাইনে দাঁড়িয়ে আরো এক তরুণের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিএপিএফ বাহিনী গুলি চালিয়েছে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কেনো তাদের গুলি চালাতে হলো তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, মানুষ ঘিরে ফেললে আত্মরক্ষার জন্যই গুলি চালাতে বাধ্য হন তারা।

মূলত সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই মমতার পদত্যাগের দাবি তুললেন অমিত শাহ। তাছাড়া ওইদিনের ঘটনায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে দোষারোপ করে তার পদত্যাগ দাবি করেছিলেন তৃণমূল নেত্রী। সেটির জবাব দিতে গিয়েই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বললেন, জনগণ যদি চায় তাহলে আমি পদত্যাগ করতে রাজি আছি। কিন্তু আপনাকেও আগামী ২ মে পদত্যাগ করতে প্রস্তুত থাকতে হবে।

এ সময় শীতলকুচির ঘটনার জন্য মুখ্যমন্ত্রীর মন্তব্যই দায়ী বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, দিদি বলেছিলেন, কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘিরে ধরতে এবং তার সেই কথাতেই জনতা ঘিরে ধরে আক্রমণ করেছিল বাহিনীকে। তিনি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও করতে উৎসাহ দেওয়াতেই ৪ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

অন্যদিকে, শনিবার শিলিগুড়িতে দলের নির্বাচনী সভায় মমতা বন্দোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী ও বিজেপি নেতা নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, কীভাবে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীকে ঘেরাও করতে হয়, তাদের পেটাতে হয় এবং বুথে হামলা করতে হয় তা নিজ কর্মীদের ট্রেনিং দিয়ে শেখাচ্ছেন দিদি।

রাজ্যে চলমান বিধানসভা নির্বাচনে আরো চার ধাপের ভোটগ্রহণ বাকি রয়েছে। আর চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করা হবে আগামী ২ মে। ওইদিন জানা যাবে, মমতা বন্দোপাধ্যায় টানা তৃতীয়বারের মতো ক্ষমতায় থাকছেন নাকি প্রথমবারের মতো বাংলা দখল করতে চলেছে কেন্দ্র ক্ষমতায় থাকা বিজেপি।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »