রাজশাহী-চাঁপাইনবাবগঞ্জে পৃথক ঘটনায় ছুরিকাঘাতে ২ জন খুন

রাজশাহীতে বন্ধুর হাতে ছুরিকাঘাতে আনসার সদস্য এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জে এক ফার্মেসি মালিক নিহত হয়েছেন। শনিবার সন্ধ্যায় রাজশাহী মহানগরীর হেতম খাঁ বিদ্যুৎ ভবন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার নামোশংকরবাটী ঝাপাইপাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে রাজশাহী মহানগরীর হেতম খাঁ বিদ্যুৎ ভবনের পাশের গলিতে এক আনসার সদস্যকে উপর্যপুরি ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। নিহত মিজানুর রহমান নগরীর হেতম খাঁ সবজিপাড়ার মোহাম্মদ মিন্টু মিয়ার ছেলে। তিনি টাঙ্গাইলের সখিপুরে আনসার বাহিনীর ফুটবল টিমের খেলোয়াড় ছিলেন। ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। ঘাতক বন্ধু মাধব পলাতক রয়েছে।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ওসি নিবারণ চন্দ্র বর্মণ জানান, ছুটিতে মিজানুর রাজশাহীতে এসেছিলেন। সন্ধ্যায় বিদ্যুৎ ভবনের পাশের গলিতে বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এসময় বন্ধুদের সাথে মোবাইলের লাইট বন্ধ করা নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। তখন হেতম খাঁ এলাকার মাধব নামের তার এক বন্ধু ছুরি নিয়ে এসে মিজানুর রহমানকে উপর্যপুরি আঘাত করে। এতে গুরুতর আহত মিজানকে দ্রুত রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ঘটনার পর থেকেই মাধব পলাতক রয়েছে। সে হেতম খাঁ এলাকার মদনের ছেলে।

অন্যদিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুলিশ জানায়, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার নামোশংকরবাটী ঝাপাইপাড়া এলাকায় শনিবার (১০ এপ্রিল) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ছুরিকাঘাতে এক ফার্মেসি মালিক নিহত হয়েছেন। নিহত হৃদয় হাসান (২৭) শহরের ৬ নং ওয়ার্ডের নামোশংকরবাটি ঝাপাই পাড়ার আশরাফুল হকের ছেলে।

নিহতের ছোটভাই রাজন জানান, শনিবার মাগরিবের নামাজ শেষে এলাকার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে সুজন কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে হৃদয়ের বুকে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। সদর মডেল থানার ওসি মো. মোজাফফর হোসেন জানান, ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হৃদয় হাসপাতালে নেয়ার পর মারা যায়। তদন্ত সাপেক্ষ পরবর্তী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »