বদরগঞ্জে হারিয়ে যাচ্ছে মাটির ঘর!

বদরগঞ্জে হারিয়ে যাচ্ছে মাটির ঘর। এক সময় গ্রামের প্রতিটি বাড়িতেই থাকতো মাটির ঘর। সেই সময় পুকুর আর গাছপালা ঘেরা মনোরম পরিবেশে মাটির ঘর যেন শান্তির আরেক রূপ। গ্রীষ্মকালে প্রখর রোদে মাটির ঘর এতটাই আরামদায়ক যে গ্রামাঞ্চলের মানুষই শুধু এর মর্ম বোঝে।

সম্প্রতি বদরগঞ্জ উপজেলা ঘুরে মাটির ঘর চোখে পড়ে রামনাথপুর ইউপির বানুয়াপাড়া গ্রামে। সেখানে দেখা গেছে, শৈল্পিক সৌন্দর্যে ভরা মাটির ঘরটি তার অতীত ঐতিহ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে আছে। বদরগঞ্জ মহিলা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ বিমলেন্দু সরকার জানান, ছোটবেলায় আমিও মাটির তৈরি ঘরে বাস করেছি। এ ঘর এতটাই ঠান্ডা থাকে যে ইলেকট্রিক ফ্যানের তেমন প্রয়োজন পড়ত না।

রামনাথপুর ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহম্মেদ জানান, আগে আমাদের এলাকায় অসংখ্য মাটির ঘর ছিল। মাটির তৈরি ঘর এতটাই আরামদায়ক ছিল যে গরমের দিনে ইলেকট্রিক ফ্যানের তেমন প্রয়োজন ছিল না। কিন্তু সময়ের সঙ্গে মানুষের রুচিবোধের পরিবর্তন এসেছে। বর্তমানে নতুন প্রজন্মও আর মাটির তৈরি ঘরে থাকতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করে না।

তিনি জানান, আধুনিকতার ছোঁয়া আর বর্ষাকালে মাটির ঘর ভেঙে যাওয়ায় গ্রামাঞ্চলের লোকজন এখন মাটির ঘর ভেঙে পাকা বাড়ি তৈরি করছে। মাটির তৈরি ঘরগুলোর আধুনিকায়ন করে গ্রামীণ অতীত ঐতিহ্যকে সংরক্ষণ করা উচিত বলে তিনি মনে করেন।

 

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »