সালথায় পেঁয়াজ পরিচর্যায় ব্যস্ত চাষি

হালি পেঁয়াজ পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন ফরিদপুরের সালথার চাষিরা। ভোক্তা চাহিদাসম্পন্ন পেঁয়াজ চাষিদের অর্থকরী মসলা জাতীয় ফসল হওয়ায় এর চাষ করে বছরের অর্থনৈতিক চাহিদা মিটিয়ে থাকেন তারা।

বর্তমান বাজারে পেঁয়াজের দাম বেশি হওয়ায় লাভের আশায় সালথার চাষিরা পেঁয়াজ চাষ ও পরিচর্যায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। চলতি মৌসুমে উপজেলায় ১২ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। যা পরিমাণে মোট আবাদি জমির ৮৮ শতাংশ। আগের চেয়ে এবার উপজেলার আটটি ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে পেঁয়াজের চাষাবাদ বেড়েছে। সবচেয়ে বেশি হালি পেঁয়াজ চাষ হয়ে থাকে সালথা উপজেলায়।

উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের বাঙরাইল গ্রামের পেঁয়াজচাষি জালাল মোল্যা জানান, এ বছর হালি পেঁয়াজের বীজের দাম বেশি হওয়ায় চাষে খরচ বেশি হচ্ছে। বাজার মূল্য ৫০ টাকা কেজির কম হলে পেঁয়াজ চাষে লোকসান গুনতে হবে। ভাওয়াল গ্রামের পেঁয়াজচাষি আবুল হাসান বলেন, বিগত বছরের তুলনায় এবার পেঁয়াজের ফলন ভালো হবে বলে আশা করি।

পুরুরা গ্রামের ফারুন হোসেন বলেন, সার কীটনাশক, পানি ও সময়মতো রক্ষণাবেক্ষণ করতে অনেক খরচ হয়। যার কারণে পেঁয়াজের দাম অনুকূলে থাকলে আমরা পরিবারের লোকজন নিয়ে খেয়ে-পরে ভালো থাকতে পারব।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ জীবাংশু দাস বলেন, পেঁয়াজ চাষিদের বীজ ও সারসহ প্রয়োজনীয় প্রণোদনা পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। পেঁয়াজ চাষ ভালো হচ্ছে এবং ফলনও ভালো হবে বলে আশা করি।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »