উহানের করোনা নিয়ে চীনের ‘মিথ্যাচার’, গবেষণায় তথ্য ফাঁস

উহানের প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ে মিথ্যাচার করেছে চীন। সম্প্রতি এক প্রতিবেদনে এমন তথ্য উঠে এসেছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চীনের সরকারি পরিসংখ্যানে উহানে করোনা রোগীর যে সংখ্যা দেখানো হয়েছে তা আসলে তিন গুণ বেশি।

উহান শহরের গবেষকদের ওই রিপোর্ট পিএলওএস নেগলেক্টেড ট্রপিক্যাল ডিজিজ জার্নালে বৃহস্পতিবার প্রকাশ করা হয়েছে। বলা হয়েছে, ২০২০ সালের মার্চ থেকে মে’র মধ্যে পুরো চীনের ৬০ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যবান লোকের রক্তের নমুনা বিশ্লেষণ করা হয়।

তাতে দেখা যায়, এরমধ্যে উহানের ১ দশমিক ৬৮ শতাংশের সার্স-কোভি-২ এন্টিবডি পাওয়া গেছে।

চীনের দেওয়া হিসেব অনুযায়ী, উহানে মোট করোনা রোগী ৫০ হাজার ৩৪০ জন। কিন্তু গবেষকরা জানিয়েছেন, এই সংখ্যা এক লাখ ৬৮ হাজার যা প্রকৃত সংখ্যার চেয়ে তিন গুণ বেশি। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মোট রোগীর কমপক্ষে দুই তৃতীয়াংশ উপসর্গহীন ছিল।

এদিকে চীনের সরকারি হিসেব অনুযায়ী দেশটিতে করোনা রোগীর সংখ্যা ৯৬ হাজার ৪৮৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৭৮৮ জন।

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে সর্বপ্রথম করোনা ভাইরাসের আবির্ভাব ঘটে। এরপর একে একে বিশ্বের ১৮৫ টির বেশি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

করোনার আবির্ভাব এবং করোনা নিয়ে তথ্য লুকিয়েছে বলে চীনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে বিভিন্ন দেশ। তবে চীন বরাবরই এই অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছে। রয়টার্স।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »