শঙ্কামুক্ত সৌরভ

আপাতত শঙ্কামুক্ত সৌরভ গাঙ্গুলি। গতকাল শনিবার (২ জানুয়ারি) আচমকা বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। যথাসময়ে চিকিৎসা প্রদান করে তাকে বিপদ থেকে বের করে আনা হয়েছে বলে দাবি করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য নিশ্চিত করেছে এনডিটিভি।

স্থানীয় সময় সকালে অসুস্থ অনুভব করার পর কোন মতে নিজেকে সামলে পরিবারের ডাক্তার সপ্তর্ষি বসুকে ফোন করেন সৌরভ নিজেই। আর তখনই তিনি মহারাজকে অবিলম্বে হাসপাতালে ভর্তি হতে বলেন। সঠিক সময়ে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ায় বড়সড় বিপদ থেকে রক্ষা পেয়েছেন কলকাতার যুবরাজ

সৌরভ গাঙ্গুলির চিকিৎসায় এরই মধ্যে পাঁচজন ডাক্তারকে নিয়ে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে। সরোজ মণ্ডল, আফতাব খান, ভবতোষ বিশ্বাস, এস বি রয়, শৌতিক পাণ্ডার মতো ডাক্তাররা রয়েছেন সেই দলে। কার্ডিওলজিস্ট, কার্ডিয়াক সার্জেন-রা আগামী ৪৮ ঘণ্টা সৌরভকে নজরে রাখবেন। যদিও এদিন বাইপাস সার্জারি নিয়ে কোনও ইঙ্গিত দেননি চিকিত্সকরা।

ড.খান বললেন, ‘সৌরভের হার্টে তিনটি ব্লকেজ ছিল। সঠিক সময় হাসপাতালে এসেছিল। তাই বড়সড় বিপদ এড়ানো গিয়েছে। ইসিজি রিপোর্ট এখন ভাল। ও ভাল আছে। আমরা অন্য দুটি ব্লক নিয়ে ভাবছি। ওকে ৪৮ ঘণ্টা নজরে রাখা হবে। তবে যে কষ্ট, ব্যথা নিয়ে ও হাসপাতালে এসেছিল, সেটা এখন নেই। ওপেন হার্ট বাইপাস সার্জারি নিয়ে এখনই কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রশ্ন নেই। তবে এখন ঝুঁকি নেই। সৌরভ উঠে বসেছেন। একটু পরে ওকে খাওয়ানো হবে। ও সজ্ঞানে রয়েছে।’’

ড. মণ্ডল বলেছেন, ‘অ্যাঞ্জিওপ্লাস্টি করা হয়েছে একটা আর্টারিতে। বাকি দুটি নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আলোচনার পর। হার্ট অ্যাটাকের ফলে যে আর্টারি ক্ষতিগ্রস্ত হয় সেটাতেই সাধারণত সবার আগে চিকিত্সা চলে। ওর পালস রেট এখন ভাল। ইসিজি রিপোর্ট ভাল। সকালে ট্রেডমিলে থাকাকালীন প্রথম সমস্যা হয়েছিল সৌরভের। এখন ওকে অন্তত ৪-৫ দিন হাসপাতালে থাকতে হবে।

তবে ও ফিট। হাসপাতাল থেকে বেরোলেই আবার আগের মতো ফিট হয়ে যাবে। ও আবার মাঠে থাকবে। যেমন কাজ করছিল সবই আবার করতে পারবে। সকালে ড. সপ্তর্ষির পরামর্শ মেনে সৌরভ তড়িঘড়ি হাসপাতালে চলে আসে। তাই বড় বিপদ এড়ানো গিয়েছে।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »