ক্ষমতায় আসার পর ২০২০ ছিল সবচেয়ে কঠিন বছর : অ্যাঞ্জেলা মার্কেল

জার্মানির চ্যান্সেলর অ্যাঞ্জেলা মার্কেল ২০২০ সালকে তার দীর্ঘ ১৫ বছরের শাসনামলের সবচেয়ে কঠিন বছর বলে বর্ণনা করেছেন। এ বছরের মেয়াদ শেষে ক্ষমতা ছাড়ার কথা রয়েছে মার্কেলের। তার আগে জাতির উদ্দেশ্যে নতুন বছর উপলক্ষে দেওয়া শেষ ভাষণে একথা বলেছেন তিনি।

তবে কোভিড-১৯-এর টিকা দেওয়া শুরু হওয়ায় ২০২১ আশার বছর হয়ে এসেছে বলেও তিনি উল্লেখ করেছেন। ২০০৫ সালে জার্মানির চ্যান্সেলর হয়েছিলেন অ্যাঞ্জেলা মার্কেল। এ বছর মেয়াদ ফুরোলেই তিনি ক্ষমতা থেকে সরে দাঁড়াবেন বলে জানিয়েছেন। রাজনৈতিক জীবন থেকেও সরে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

দীর্ঘ এই শাসনামলে ২০০৮ সালের অর্থনৈতিক সঙ্কট, এর এক বছর পর গ্রিসের ঋণ সংকট এবং পাঁচ বছর আগে অভিবাসী সংকটের মধ্যেও জার্মানি এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) কাণ্ডারি হয়ে থেকেছেন মার্কেল।

কিন্তু সব সংকট ছাপিয়ে কোভিড-১৯ মহামারি ২০২০ সালকে সবচেয়ে কঠিন করে তুলেছে ইঙ্গিত দিয়ে মার্কেল বলেন, ‘আমি একটুও বাড়িয়ে বলছি না। গত ১৫ বছরে কখনোই বিদায়ি বছরকে এত ভারী মনে হয়নি। আবার শত উদ্বেগ আর কিছু সমালোচনার পরও কোনো নতুন বছরের জন্য এত আশা নিয়ে কখনো অপেক্ষা করিনি।’ তিনি আরো বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে প্রিয়জনদের হারিয়ে শোকার্ত স্বজনরা কিংবা ভাইরাসটির শিকার হয়ে অসুস্থতার সঙ্গে লড়ে যাওয়া মানুষেরা কতটা তিক্ততা বোধ করছেন তা কেবল আমরা কল্পনাই করতে পারি।’

বৈজ্ঞানিক পরামর্শমতো মহামারি পরিস্থিতি সামাল দিয়ে প্রশংসা কুড়িয়েছেন মার্কেল। অনেক ইউরোপীয় দেশের তুলনায় নিজ দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত-মৃত্যু কম রাখতে পেরেছিলেন তিনি। কিন্তু প্রথম দফা করেনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারলেও এর দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে ব্যর্থতার জন্য মার্কেল পরবর্তীকালে সমালোচিতও হয়েছেন। সূত্র: রয়টার্স

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »