মহামন্দার বছরে প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি

কেমন গেল ২০২০ সালের চলচ্চিত্রের বাজার। সেই হিসেবে হয়তো একবাক্যে বলা যায় মহামন্দার বছর। তবু এর ভেতরে তারকাদের ব্যক্তিগত সাফল্য সিনেমার ঈষত্ সাফল্যই বলা চলে । তা নিয়ে চলচ্চিত্রের সালতামামি ২০২০

করোনা ভাইরাস মহামারি শুরুর আগে ২০২০ সালের মার্চ মাস পর্যন্ত মাত্র ৫টি বাংলা সিনেমা মুক্তি পেয়েছিল। ছবিগুলো হলো ‘জয়নগরের জমিদার’, ‘গণ্ডি’, ‘বীর’, ‘হলুদবনি’ ও ‘শাহেনশাহ’। এরমধ্যে কেবল ‘বীর’ একটু ব্যবসা সফলতা পায়। এরপরই শুরু হয় করোনা মহামারির প্রকোপ, থমকে যায় বিশ্ব।

দীর্ঘ ৮ মাস বন্ধ থাকার পর স্বাস্থ্যবিধি মেনে ১৬ অক্টোবর থেকে খুলেছে সিনেমা হল। ‘সাহসী হিরো আলম’ নামের মানহীন সিনেমার মাধ্যমে হল খুললেও মুখ থুবড়ে পড়ে ছবিটি। পরে গত ২৩ অক্টোবর ‘ঊনপঞ্চাশ বাতাস’ মুক্তির মাধ্যমে খুলেছে মাল্টিপ্লেক্স। এ ছবিটিও ব্যবসার দিক থেকে খুব বেশি সুবিধা করতে পারেনি। তবে কিছুসংখ্যক দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছে।

তানভীর মোকাম্মেল পরিচালিত ‘রূপসা নদীর বাঁকে’ ছবিটি ১১ ডিসেম্বর মুক্তি পায়। এতে অভিনয় করেছেন জাহিদ হোসেন শোভন, খায়রুল আলম সবুজ, নাজিবা বাশার, রামেন্দু মজুমদার, চিত্রলেখা গুহ, ঝুনা চৌধুরীসহ অনেকে। একইদিনে চয়নিকা চৌধুরী পরিচালিত প্রথম সিনেমা ‘বিশ্বসুন্দরী’ মুক্তি পায়। দেশের ২৫টি সিনেমা হলে চলে সিয়াম, পরীমনি, চম্পা, ফজলুর রহমান বাবু ও আলমগীর অভিনীত ছবিটি। আলোচনায় ছিল, কিন্তু ব্যবসাসফল বলা যায় না।

২৫ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের সিলভার স্ক্রিনে মুক্তি পেয়েছে দেশের প্রথম ইংরেজি ভাষায় নির্মিত ছবি ‘দ্য গ্রেভ’। বাংলায় ছবিটির নাম ‘গোর’। সরকারি অনুদানে নির্মিত এই ছবির পরিচালক গাজী রাকায়েত। দুই ভাষার একই ছবিতে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ, দিলারা জামান, মামুনুর রশীদ, সুষমা সরকার ও এ কে আজাদ সেতু। গতবছর মোট ৪১টি বাংলা ছবি মুক্তি পেয়েছিল। এবার সেই সংখ্যা ১২টিতে এসে নেমেছে। কমতে কমতে বর্তমানে দেশে ৬০ থেকে ৭০টি সিনেমা হল কোনোরকমে চালু আছে। তবে উত্সবগুলোতে এখনো ৯০টির কাছাকাছি সিনেমা হলে ছবি প্রদর্শিত হয়। কয়েকবছর আগে দেশে সিনেমা হলের সংখ্যা ছিল ২শ’টির বেশি। আগামীতে হলের সংখ্যা আরো কমে আসবে। অনেকেই বলছেন ওটিটি, নেটফ্লিক্সসহ অনেক মাধ্যমের কথা। তবে বাংলা সিনেমার দর্শকদের এসবে অভ্যস্ত হতে আরো সময় লাগবে। দেশের বন্ধ হয়ে যাওয়া সিনেমা হল পুনরায় চালু করা, পুরনো হল সংস্কার এবং নতুন হল নির্মাণের জন্য ১ হাজার কোটি টাকার তহবিল গঠনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অনেকগুলো বন্ধ সিনেমা হল চালু হবে। চালু সিনেমা হলগুলো সংস্কার ও আধুনিক করা হবে। চলচ্চিত্র শিল্পের সঙ্গে জড়িত অনেকেই বলেছেন, শুধু সিনেমা হল সংস্কার হলে কী চলচ্চিত্র শিল্প ঘুরে দাঁড়াবে? ভালো ভালো সিনেমা নির্মাণের পাশাপাশি সমগ্র চলচ্চিত্র নিয়ে ভাবা জরুরি। ২০২০ সাল বাংলা সিনেমার জন্য ভয়ঙ্কর একটি বছর।

চলচ্চিত্রের আলোচিত ১০

ববিতা উইকিপিডিয়ায় সাত ভাষায় : আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাংলাদেশি অভিনেত্রী ববিতা প্রায় ৩০০টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। এ বছর তিনি ভিন্ন এক রেকর্ড তৈরি করেছেন। মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়ায় ৭টি ভাষায় তার তথ্য উঠে এসেছে। এ দেশের বেশিরভাগ তারকার ক্ষেত্রে এক বা দুই ভাষাতেই তথ্য দেখা যায়। কিন্তু ববিতার ক্ষেত্রে যুক্ত হয়েছে বাংলা, ইংরেজি, আরবি, কোরিয়ান, তামিল, উড়িয়া ও পাঞ্জাবি ভাষা।

ফোর্বসের ১০০ ডিজিটাল তারকায় পরীমনি : গত ৭ ডিসেম্বর এশিয়ার ১০০ ডিজিটাল তারকার তালিকা প্রকাশ করে আমেরিকার বিজনেস ম্যাগাজিন ফোর্বস। তালিকায় আছেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী পরীমনি। এ ছাড়া এবার সোশ্যাল বেকারস ডটকম প্রকাশ করেছে বাংলাদেশের শীর্ষ ডিজিটাল তারকাদের নাম। সেই তালিকার প্রথমে আছেন এই অভিনেত্রী।

স্টার সিনেপ্লেক্স বন্ধের খবর :সেপ্টেম্বর মাসের শুরুর দিকে জানা যায়, বসুন্ধরা সিটিতে থাকছে না দেশের প্রথম মাল্টিপ্লেক্স স্টার সিনেপ্লেক্স। পরে বসুন্ধরা ও স্টার সিনেপ্লেক্সের মধ্যে আলোচনায় সমাধান হয়ে সেখানেই থাকে। ২০০৪ সালে থেকে পথচলা শুরু করেছে স্টার সিনেপ্লেক্স।

প্রযোজক সমিতি বাতিল :প্রযোজক সমিতির এক সদস্যের অভিযোগের ভিত্তিতে নির্বাচনে অনিয়মের কারণে ১৭ নভেম্বর বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক ও পরিবেশক সমিতির ২০১৯-২০২১ মেয়াদের কার্যনির্বাহী কমিটি বাতিল করে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়।

শাবনূরের বিচ্ছেদ :৭ বছর আগে অনিক মাহমুদ হূদয়ের সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন জনপ্রিয় নায়িকা শাবনূর। চলতি বছরের ২৬ জানুয়ারি স্বামীর সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদ করেন এই অভিনেত্রী।

নুসরাত ফারিয়ার বাগদান :চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া ও রনি রিয়াদ রশিদ আংটি বদল করেছেন চলতি বছর। দুই পরিবারের মতামতে মার্চ মাসে তাদের আংটি বদল হয়। রনি একটি টেলিকমিউনিকেশন প্রতিষ্ঠানের সিইও হিসেবে কর্মরত।

কোথাও নেই বুবলী : বুবলী অভিনীত ‘বীর’ ছবিটি চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি মুক্তি পায়। এরপর তার আর কোনো খবর নেই, কোথাও দেখা যায়নি তাকে। তার অভিনয় ক্যারিয়ারের ১১টি ছবির ১০টিতেই আছেন শাকিব খান।

যাদের হারিয়েছি

ঢাকাই সিনেমার জনপ্রিয় খল-অভিনেতা সাদেক বাচ্চু ১৪ সেপ্টেম্বর মারা যান। তার বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। ঢালিউড চলচ্চিত্রের খ্যাতনামা প্রযোজক নাসিরউদ্দিন দিলু ৩ নভেম্বর করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যান। ৪ বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী চিত্রসম্পাদক আমিনুল ইসলাম মিন্টু ১৮ ডিসেম্বর মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮১ বছর।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »