ইউরোপীয় দেশগুলোতে একযোগে করোনার টিকা দেয়া শুরু

ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত (ইইউ) সব দেশে কোভিড-১৯ টিকা একযোগে দেয়া শুরু হয়েছে। রোববার থেকে বিভিন্ন দেশে পুরোদমে এ কর্মসূচি শুরু হয়। এই গণটিকাদানকে ‘টাচিং মোমেন্ট অব ইউনিটি’ বলে বর্ণনা করেছেন ইইউয়ের শীর্ষ কর্মকর্তা।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, শনিবার এক টুইটে ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট উরসুলা ভন ডার লিন ইইউ সদস্যভুক্ত ২৭ দেশের সবকটিতেই ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা সরবরাহ করার খবর নিশ্চিত করেছেন।

টুইটারে পোস্ট করা এক ভিডিওবার্তায় তিনি বলেন, আমরা একটি কঠিন বছরের পাতা উল্টে দেয়ার কাজ শুরু করেছি। কোভিড-১৯ এর টিকা ইইউভুক্ত সব দেশে পাঠানো হয়েছে।

আনাদুলোর খবরে বলা হয়েছে– ফ্রান্স, অস্ট্রিয়া, সুইডেন, স্পেনে স্বাস্থ্যকর্মী ও বয়োজ্যেষ্ঠদের অগ্রাধিকার ভিত্তিতে টিকা দেয়া হচ্ছে।

ফ্রান্সে ৭৮ বছর বয়স্ক এক নারীকে প্রথম করোনার টিকা দেয়া হয়েছে।  রেনে মুরেত হাসপাতালের একজন চিকিৎসককেও রোববার করোনার টিকা দেয়া হয়।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জার্মানির যৌথ প্রচেষ্টায় উদ্ভাবিত ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা শনিবার জার্মানিতে সাড়ে ১৯ হাজার ডোজ দেয়া হয়েছে। ১০১ বছর বয়স্ক এক নারীকে দিয়ে টিকার উদ্বোধন করা হয়েছে।

ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোঁ করোনার টিকাকে নতুন অস্ত্র আখ্যা দিয়ে টুইট করেছেন।

বড় ধরনের এই কর্মসূচির আওতায় ইইউ দেশগুলোর ৪৪ কোটি ৬০ লাখ মানুষকে টিকা দেয়া হবে। রোববার থেকে এই কার্যক্রম শুরু হওয়ার কথা।

কিন্তু কয়েকটি দেশ রোববার পর্যন্ত অপেক্ষা করতে রাজি নয়। তারা শনিবার থেকেই টিকাদান শুরু করেছে। তারা বলেছেন, তারা আরও একদিন অপেক্ষা করতে প্রস্তুত নয়।

ইউরোপে এখন পর্যন্ত ৩ লাখ ৩৫ হাজারের বেশি মানুষ কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটি ৪০ লাখের বেশি মানুষ।

শীতে আবারও মহামারীর প্রকোপ বেড়ে যাওয়া ইইউর বেশিরভাগ দেশেই এখন কঠোর লকডাউন চলছে। বাতিল হয়েছে বড়দিন ও নববর্ষের ছুটির সব ধরনের উদযাপন। কোনো কোনো দেশে করোনায় দ্বিতীয় ঢেউ লেগেছে।

হাঙ্গেরিতে শনিবার একজন চিকিৎসককে প্রথম টিকা দেয়া হয়েছে। স্লোভাকিয়া কর্তৃপক্ষও শনিবার থেকে টিকা দেয়ার শুরু করার কথা জানিয়েছেন।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »