নতুন বছরে নতুন ইশতেহারে মীম

একইসঙ্গে চলচ্চিত্র, টিভিসি ও ডিজিটাল প্লাটফর্মে সফল চিত্রতারকার সংখ্যা কম আমাদের দেশে। সেক্ষেত্রে বিদ্যা সিনহা মীমের তিন মাধ্যমে দারুণ স্বচ্ছন্দ্যে যাতায়াত। আমাদের দেশের এই বিউটি উইথ ব্রেইন মীম অভিনয়ের ক্ষেত্রে গত ২ বছর একেবারেই নাটকের সংখ্যা কমিয়ে দিয়েছিলেন। সেই ধারাবাহিকতা এখনো রাখছেন তিনি। তবে ইংরেজি নববর্ষের শুরুতেই ‘হ্যালো বেবি’ নামের নতুন একটি নাটক করলেন একটি ইউটিউব চ্যানেলের জন্য। তাহসানের সঙ্গে মীমের জুটি বরাবরই দর্শকদের কছে বাড়তি আগ্রহ তৈরি করে। এর আগে লকডাউনে ‘কানেকশন’ নামের একটি শর্টফিল্মের কাজ করেছিলেন মীম তার নিজের ইউটিউব চ্যানেলের জন্য। তাহসানের সঙ্গে জুটি নিয়ে মীমের প্রেম গুঞ্জনও বেশ শুনতে হয়। এ প্রসঙ্গে মীম বলেন, ‘এসব নিয়ে বরং আমরা দুজনই সেটে খুব হাসাহাসি করি। কারণ তাহসান ভাইয়া আমার কাছে খুব কাছের বন্ধু, বড় ভাইয়ের মতোই সবসময়

অন্যদিকে, তাহসান একটি লাইভে এই গুঞ্জন প্রসঙ্গে বলেছিলেন, ‘আসলে এ বিষয়গুলো সেট থেকেই হয়তো খুব কাছের মানুষরা ছড়ায়। এখন এসব ফেক নিউজ নিয়ে কি-ই বা বলার আছে!’

তবে গুঞ্জন গসিপ যাই হোক না কেন, মীম-তাহসান জুটিটা সবসময়ই দর্শকদের দারুণ এক আগ্রহের জায়গা তৈরি করে।

এছাড়া লকডাউনকালে মীম তার নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে ‘মীম কাস্টডি’ নামের একটি অনুষ্ঠান উপস্থাপনা করেছেন। এর বেশ ক’টি পর্ব বেশ আলোচনা তৈরি করে। এ নিয়ে মীম বলেন, ‘ওটা তো ঠিক নিয়মিত করার জন্য তৈরি না। লকডাউনে বাসায় বসে কী করবো! সেকারণেই শোটি করেছি। অভিজ্ঞতাও দারুণ। তবে এত দ্রুত সময়ের ভেতরে লাখ সাবস্ক্রাইবার ক্রস করবে তা সত্যিই বুঝতে পারিনি। আমি অভিভূত, কৃতজ্ঞ আমার ভক্তদের কাছে।’

উল্লেখ্য, এরই ভেতরে ইউটিউবে ১ লক্ষ সাবস্কাইবারের মাইলফলক অতিক্রমের জন্য সিলভার প্লে-বাটনও পেয়েছেন বিদ্যা সিনহা মীম। তবে নতুন বছরে ব্যক্তিগত ইশতেহার কী হবে জানতে চাইলে মীম বলেন, ‘২০২০ কেমন গেল এটা আর বাড়তি করে বলার প্রয়োজন নেই। এই কালো বছরটা পেরিয়ে খুব দারুণ একটা সময় আসবে সবার মতো আমারও সেটিই প্রত্যাশা। নিজের কাজের ক্ষেত্রে হয়তো ওটিটিতে ভালো গল্প বা সিরিজ করতে পারি চলচ্চিত্রের কাজের পাশাপাশি।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »