বাড়ি যেতে চান মেলানিয়া ট্রাম্প

গত ৩ নভেম্বরের মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনকে স্বীকৃতি দেননি প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত নভেম্বরের মাঝামাঝিতে ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পও তার স্বামীর দাবির প্রতি প্রকাশ্যে সমর্থন জানিয়েছিলেন। কিন্তু এখন ব্যক্তিগতভাবে তিনি নির্বাচনের ফলাফল মেনে নেওয়ার পক্ষে। এর আগে ট্রাম্পের সঙ্গে মেলানিয়ার বিচ্ছেদের গুঞ্জনও শোন গিয়েছিল। খবর সিএনএনের

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ফলাফল নিয়ে আইনি লড়াইয়ের মাধ্যমে হোয়াইট হাউজে আরো চার বছর থাকতে চাইলেও মেলানিয়া ট্রাম্প এখন বাড়ি ফিরতেই বেশি আগ্রহী। রাজ্যগুলো চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করতে শুরু করেছে। এরই মধ্যে হোয়াইট হাউজ পরবর্তী জীবনের জন্য বাজেট ও কর্মচারী বরাদ্দ নিয়ে আলাপ করেছেন তিনি। একটি সূত্র জানিয়েছে, ট্রাম্পের আইনি লড়াইয়ে একেবারেই আগ্রহ নেই মেলানিয়ার।

তার মানসিক অবস্থা সম্পর্কে জানেন এমন একজন জানিয়েছেন, মেলানিয়া কেবলই বাড়ি যেতে চান। ২০২৪ সালে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প পুনরায় প্রার্থী হতে পারেন। এই বিষয়টিকে ভালোভাবে নিচ্ছেন না বলেও ঐ সূত্র জানিয়েছে। ফ্লোরিডার পাম বিচে অবস্থিত মার-এ-লাগোর বাসভবনে বাস করতে চান মেলানিয়া ট্রাম্প। সেখানে ছেলে ব্যারনকে পড়ালেখা করার ব্যাপারেও খোঁজ নিয়েছেন।

গত এপ্রিলে মার্সিয়া লি কেলিকে নিয়োগ দেন ট্রাম্প। তার উপদেষ্টা হিসেবে কেলি ভালোই কাজ করেছেন। কেলি এর আগে হোয়াইট হাউজের প্রশাসন পরিচালনা করেছেন। ওয়াশিংটন পরবর্তী জীবনের প্রস্তুতি নেওয়ার ক্ষেত্রে তিনি ট্রাম্পকে সহায়তা করতে পারেন। জানা গেছে, কেলিকে ওয়েস্ট উইংয়ের পরিচিত ও অফিশিয়াল অব ম্যানেজমেন্ট অ্যান্ড বাজেটের পরিচিত কর্মকর্তাদের কাছে সাবেক ফার্স্ট লেডির জন্য করদাতা তহবিল বরাদ্দ আছে কি না সেই বিষয়ে খোঁজ নিতে বলেছেন মেলানিয়া। তবে যুক্তরাষ্ট্রে সাবেক প্রেসিডেন্টের জীবিত অবস্থায় সাবেক ফার্স্ট লেডির জন্য সরকারের পক্ষ থেকে তেমন সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হয় না।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »