হামলার আগে তিন মাস ভারতে ছিলেন ক্রাইস্টচার্চের ঘাতক

২০১৯ সালের ১৫ মার্চ ভয়াবহ সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয় নিউজিল্যান্ড। দেশটির ক্রাইস্টচার্চ শহরের দুটি মসজিদে ঐ হামলায় নামাজরত ৫১ জন মুসল্লি নিহত হন। সম্প্রতি ঐ হামলা সম্পর্কে বিস্তারিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। প্রতিবেদনে হামলাকারী ব্রেন্টন ট্যারেন্ট নিজের দেশে হামলা চালানোর আগে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশে ভ্রমণ করেছেন। এর মধ্যে তিনি সবচেয়ে বেশি সময় কাটিয়েছেন ভারতে। সেখানে প্রায় তিন মাস তিনি ছিলেন বলে প্রতিবেদনে উঠে আসে। খবর দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের

রয়েল কমিশন অব ইনকোয়ারির ৭৯২ পাতার ঐ প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, স্কুল ছাড়ার পর ৩০ বছর বয়সী ঐ হামলাকারী স্থানীয় একটি জিমের ব্যক্তিগত ট্রেনার হিসেবে কাজ শুরু করেন। ২০১২ সালে শরীরে চোট পাওয়ার আগে পর্যন্ত এটাই ছিল তার কাজ। এরপর আর কোনো বাঁধাধরা চাকরি করেননি ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। বাবার কাছ থেকে নেওয়া অর্থ বিভিন্ন জায়গায় বিনিয়োগ করে আয়ের পথ তৈরি করেন তিনি। ২০১৩ সালে তিনি প্রথম বার অস্ট্রেলিয়ায় ভ্রমণ করেন। তার আগে ঐ বছরই তিনি পুরো নিউজিল্যান্ড ঘুরে বেড়িয়েছেন।

২০১৪ সাল থেকে ২০১৭ পর্যন্ত বিশ্ব ভ্রমণে বের হন এই হামলাকারী। প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, ২০১৪ সালের ১৫ এপ্রিল থেকে ২০১৭ সালের ১৭ আগস্টের মধ্যে সব জায়গায় একাই ঘুরে বেড়িয়েছেন ব্রেন্টন ট্যারেন্ট। তবে এর ব্যতিক্রম ছিল উত্তর কোরিয়া। তিনি একটি টিমের সঙ্গে কিম জং উনের দেশে সফর করেছেন। ক্রাইস্টচার্চে হামলার প্রায় ১৮ মাস পর প্রকাশিত এই রিপোর্টে জানা গেছে, ব্রেন্টন ট্যারেন্ট তিন মাস ভারতেই কাটিয়েছেন।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »