‘নারীদের যদি এগোতেই না দিই, তাহলে সমাজতো খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলবে’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‌‘একটা সমাজের অর্ধাংশ নারী। সমাজ উন্নত করতে হলে, সেখানে নারীদের সমানভাবে তৈরি করতে না পারলে সেই সমাজ কীভাবে গড়ে উঠবে? সমাজের অর্ধাংশ নারীদের যদি এগোতেই না দিই, তাহলে কী করে একটা সমাজ দাঁড়াতে পারে? সমাজকে তো খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলতে হবে।’

আজ বুধবার বেগম রোকেয়া দিবস উদযাপন ও বেগম রোকেয়া পদক প্রদান অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে এসব কথা বলেন তিনি।  শেখ হাসিনা বলেন, ‘আজ আমাদের মেয়েরা অনেক এগিয়ে গেছে। আমরা চাই, আমাদের দেশের মেয়েরা সমানভাবে এগিয়ে যাক। কারণ, বেগম রোকেয়াই আমাদের পথ দেখিয়ে গেছেন।’

 

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘তিনি (বেগম রোকেয়া) সমাজে একটা বিবর্তন নিয়ে এসেছিলেন। অনেক প্রতিকূল অবস্থার মধ্য দিয়ে তিনি এই দেশের নারী সমাজকে এগিয়ে নিয়ে আসেন এবং তাদের শিক্ষায় আলোকিত করেন। বেগম রোকেয়া বলতেন, ‘কন্যাগুলিকে সুশিক্ষিত করিয়া কার্যক্ষেত্রে ছাড়িয়া দাও। নিজের অন্ন-বস্ত্র উপার্জন করুক।”

তিনি বলেন, “কষ্ট করেই তিনি (বেগম রোকেয়া) শিক্ষার আলোটা জ্বালিয়ে দিয়ে যান আমাদের জন্য। যার জন্য আজ আমরা বলতে পারি, আমরা মেয়েরা অনেক সুযোগ পেয়েছি।’

এ সময় শেখ হাসিনা তার মা শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিবের কথা স্মরণ করেন। তিনি বলেন, ‘আমার মা, যিনি সারাজীবন আমার বাবার পাশে থেকে স্বাধীনতা সংগ্রামে অনুপ্রেরণা জুগিয়েছেন, সহযোগিতা করেছেন। যখন আমার বাবা জেলে থাকতেন তখন দল গঠন থেকে শুরু করে আন্দোলন সংগ্রাম করা বা তার মামলা মোকাদ্দমা দেখা বা আমাদের মানুষ করা, লেখাপড়া শেখানো সব দায়িত্ব কিন্তু আমার মা নিজে করেছেন।’

‘কোনো প্রতিষ্ঠনিক শিক্ষার সুযোগ তার (শেখ ফজিলাতুননেছা মুজিব) ছিল না। কারণ, সেই সময়কার যুগে মেয়েরা একটু বড় হলে আর তাদের স্কুলে যেতে দেওয়া হতো না, পড়তে দেওয়া হতো না। সেখানে আমি দেখেছি, আমার মা খুব জ্ঞানপিপাসু ছিলেন এবং নিজের চেষ্টায় তিনি অনেক লেখাপড়া করতেন। আমাদের সবসময় লেখাপড়া করতেও তিনি উৎসাহিত করতেন।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »