‘এলিয়েনের অস্তিত্ব আছে, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে হয়েছে চুক্তি’

এলিয়েনের অস্তিত্ব আছে এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এ সম্পর্কে জানেন। এমনই দাবি করেছেন ইসরায়েলের সাবেক স্পেস প্রধান হাইম এশেদ (৮৭)।

দেশটির ইয়েদিট আহারনোট পত্রিকাতে হাইম এশেদ (৮৭) ভিন গ্রহের প্রাণীর অস্তিত্ব এবং এলিয়েনদের সংস্থা ‘গ্যালাকটিক ফেডারেশনের’ সঙ্গে মার্কিন সরকারের একটি চুক্তির ব্যাখ্যা করেন। এশেদ ইসরায়েলের স্পেস সিকিউরিটি প্রোগ্রামের প্রায় ৩০ বছর ধরে নেতৃত্বে ছিলেন। তিনি বলেন, মার্কিন সরকার এবং এলিয়েনদের মধ্যে একটি চুক্তি হয়েছে। তারা এখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্য আমাদের সঙ্গে একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

তিনি আরো বলেন, ট্রাম্প ভিনগ্রহের প্রাণীদের অস্তিত্বের ব্যাপারে জানেন এবং ট্রাম্প এই সম্পর্কে তথ্য প্রায় বলে ফেলছিলেন কিন্ত নির্দেশ অনুযায়ী শেষমেশ আর কিছু বলেননি। এশেদ জানান, ভিন গ্রহের প্রাণীরা আমেরিকা ও ইসরায়েলের বিজ্ঞানীদের সঙ্গে অনেকদিন ধরেই যোগাযোগ রাখছেন। এশেদ আরও দাবি করেছেন, বিজ্ঞানীদের সঙ্গে ভিনগ্রহের প্রাণীদের চুক্তি রয়েছে। সেই চুক্তির শর্ত, ভিনগ্রহীরা সম্মতি না দেওয়া পর্যন্ত তাদের কথা পৃথিবীর মানুষকে জানাতে পারবেন না বিজ্ঞানীরা।

এশেদ বলেন, ‘স্পেস আর স্পেসশিপ শুনলেই এখনও মানুষ অনেক কিছু মনে মনে ভেবে ফেলে। ভিনগ্রহের প্রাণীরা এখনই এই গোটা বিষয়টি নিয়ে বেশি হইচই চায় না।

ইসরায়েলের স্পেস সিকিউরিটি প্রোগ্রামের নেতৃত্বদানকারী হাইম আরো দাবি করেছেন, মঙ্গল গ্রহের মাটির নিচে গোপনে গবেষণা চালায় ভিনগ্রহের প্রাণীরা। সেখানেই আমেরিকার মহাকাশচারী ও বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় সাহায্য করে। এদিকে এই ব্যাপার নিয়ে হোয়াইট হাউস এবং ইসরায়েলের পক্ষ থেকে এখন পর্যন্ত কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »