বাংলাদেশের ফুটবল শীর্ষ পর্যায়ে যাওয়া সময়ের ব্যাপার : সালাউদ্দিন

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের এক জয়ই মন ভরিয়ে দিয়েছে দেশের ফুটবল দর্শকদের। শুক্রবার নেপালের বিপক্ষে দুর্দান্ত নৈপুণ্য দেখিয়েছেন জীবন-সাদ-সুফিলরা। বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনও আনন্দিত ফুটবলারদের এমন পারফরম্যান্সে। সকলের সমর্থন পেলে বাংলাদেশের ফুটবল শীর্ষ পর্যায়ে যাওয়াটা একটা সময়ের ব্যাপার মাত্র বলে মন্তব্য করেছেন সালাউদ্দিন।

নেপালের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচটি কেমন হয়েছে জানতে চাইলে সালাউদ্দিন বলেছেন, ‘ভালো খেলা হয়েছে। উভয়দলই ভালো খেলেছে। বাংলাদেশ প্রথমার্ধে খুবই ভালো খেলেছে। প্রথমার্ধে আরও দু’একটা গোল হওয়া উচিত ছিল। বিশেষ করে তপুর হেডটা। ও কেন মিস করেছে ওকে জিজ্ঞেস করলেও বলতে পারবে না। এটাই ফুটবল। কিন্তু এটা অবশ্যই একটা ভালো ম্যাচ ছিল। করোনাভাইরাসের পর খেলোয়াড়দের রিকভারি করতে আরেকটু সময় লাগবে। তবে এ রকম ফুটবলই আমরা আশা করছিলাম অনেকদিন ধরে।’

বাংলাদেশের প্রধান যে সমস্যা সেটা হলো সারা মাঠ দাপিয়ে বেড়িয়ে ফিনিশিং করতে না পারা। গতকালের (শুক্রবার) ম্যাচে কি আপনি এমন কিছু দেখেছেন? সালাউদ্দিন বলেন, ‘এটার আরও উন্নতি হওয়া উচিত ছিল। কারণ এটার জন্যই তো কাজ করছিলেন কোচরা। কিন্তু খেলোয়াড়দেরই তো ফিনিশ করতে হবে। কোচ তো পারবেন না। আমি ও না। তবে আমি মনে করি দুটি গোলই সুন্দর হয়েছে। প্রথম এবং দ্বিতীয় দুটি গোলই মানসম্পন্ন ছিল। এটি করার মতো সামর্থ্য তাদের আছে। কিন্তু যে কোনো কারণেই হোক এরা করতে পারছিল না। একটা কথা না বললেই নয়। স্পেশালি ইলেক্ট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়া গত ক’মাসে ওদের যে সমর্থন দিয়েছে। তাতে তাদের আত্মবিশ্বাসটা বেড়ে গেছে।’

‘আমি আবার বলছি, ফুটবল ২১১টা দেশ খেলে। এখানে উন্নতি করতে গেলে দরকার হবে ফেডারেশন, ফুটবলার, ক্লাব, ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া, প্রিন্ট মিডিয়া ও সাধারণ জনগণ, তার সঙ্গে সরকারের পৃষ্ঠপোষকতা দরকার। এই সমর্থনগুলো পেলে বাংলাদেশের ফুটবল শীর্ষ পর্যায়ে যাওয়া সময়ের ব্যাপার মাত্র।’ যোগ করেন সালাউদ্দিন

কাতার ম্যাচের প্রস্তুতির জন্য হাতে আরও সময় আছে। নেপাল ম্যাচের পারফরম্যান্স দেখার পর আপনি কি মনে করেন কাতার ম্যাচে ভালো কিছু হবে? সালাউদ্দিনের উত্তর, ‘কঠিন প্রশ্ন! তিন চার সপ্তাহ সময় আছে কাতার ম্যাচের আগে। এটা পর্যাপ্ত সময় নয়। কারণ কাতার আরও তিন চার মাস আগের থেকে ট্রেনিং করছে। সবাই জানেন কাতার বিশ্বকাপের স্বাগতিক দল। এশিয়া চ্যাম্পিয়ন। তাই এটি হবে খুবই কঠিন লড়াই। আমি আশা করব ছেলেরা সম্মানজনকভাবে খেলে আসবে।’

বাংলাদেশের ফুটবলটাকে কোথায় দেখতে চান আপনি? বাফুফে সভাপতি বলেন, ‘এশিয়াতে টুর্নামেন্ট খেলতে গেলে যেন সম্মান পাই। আমার কিছু খেলোয়াড় কেন বিদেশের মাঠে খেলবে না? পেশাদার হিসেবে। আমার কিন্তু মূল আগ্রহ ওইগুলোই। কিন্তু ওই আগ্রহগুলোতে কাজ করতে গেলে স্বাভাবিকভাবেইর্ যাংকিং আসবে।র্ যাংকিংয়ে আরেকটা যে বিষয় আছে। সেটা হলো ফান্ড সমস্যা। কারণ আমাদের ম্যাচ খেলতে হবে। দুটি ম্যাচ জিতলেই হবে না। অন্তত ২০টা ম্যাচ খেলতে হবে। তার মধ্যে ১৬টা হেরে যদি ৪টাতেও জয় পাইর্ যাংকিং বাড়বে।’

‘ওখানেও ফান্ডের সমস্যা। আমরা যদি ফান্ড জোগাড় করতে পারি অবশ্যইর্ যাংকিংয়ে যাব। কাল দেখেন মিডিয়া আর জনগণের ভূমিকাটা ছিল খুবই পজেটিভ। আর পজেটিভ রোল খেলায় পজেটিভ ফল এনে দেয়। এখন যদি সরকার আসে অর্থনৈতিক সহায়তা দিতে। তাহলে পরবর্তী পদক্ষেপটা হবে আরও বেশি পজেটিভ। আমরা এভাবে শুরু করি। সবাইকে ধন্যবাদ জানাই বাংলাদেশকে সমর্থন দেয়ার জন্য।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »