মাশরাফি ফিট না, সাকিবকে নিয়ে চিন্তা নেই

আগামী ২১ অথবা ২২ নভেম্বর বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আয়োজনে শুরু হতে যাচ্ছে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট। পাঁচ দল নিয়ে আয়োজিত এই টুর্নামেন্টে জাক-ঝমকের কোনো কমতি রাখছেনা বিসিবি। এই টুর্নামেন্ট দিয়ে নিষেধাজ্ঞা কাটানোর পর প্রত্যাবর্তন ঘটবে সাকিব আল হাসানের। অন্যদিকে শারীরিকভাবে ফিট না থাকার কারণে টুর্নামেন্টে এখন পর্যন্ত অনিশ্চিত সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি মোর্ত্তজা।

টুর্নামেন্ট উপলক্ষে ১২ নভেম্বর থেকে ১৬০ জন ক্রিকেটারকে নিয়ে শুরু হবে প্লেয়ার্স ড্রাফট। এদিন পছন্দের ক্রিকেটারদের নিয়ে দল সাজাবে দলগুলো। আজ শনিবার ( ৭ নভেম্বর) বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান।

মিরপুরে শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে আকরাম খান জানান, মাশরাফি এখনো ফিট না তাই সে ফিটনেস টেস্ট দিতে পারবে না। ফিট হলে সে ফিটনেস টেস্ট দিতে পারবে। আর সাকিবের ফিটনেস নিয়ে চিন্তিত নন বলেও জানিয়েছেন বিসিবির এই পরিচালক।

আগামী সোমবার থেকে শুরু হবে ক্রিকেটারদের ফিটনেস টেস্ট। প্রথম দিনেই ফিটনেস টেস্ট দিবেন সাকিব। এই টুর্নামেন্টের জন্য ১৬০ জন ক্রিকেটারের নাম তালিকাবদ্ধ করেছে বিসিবি। স্পন্সরের কাজ ৯০ ভাগ পূর্ণ হলেও এখনো জানাতে চায়না ক্রিকেট বোর্ড। শতভাগ নিশ্চিত হওয়ার পরই জানানো হবে।

কিছুদিন আগে ইনজুরিতে পড়েন মাশরাফি। বাসায় তার ছেলে-মেয়ে করোনা পজেটিভ হওয়ায় বের হয়ে স্ক্যানও করাতে পারছেন না সাবেক অধিনায়ক। তাই আসন্ন টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টে তার খেলা এখনো অনিশ্চিত। এ ছাড়া সাকিব দেশে ফেরেন গত বৃহস্পতিবার রাতে। আজ তার করোনা টেস্ট করা হয়েছে। নেগেটিভ আসলেই তিনি অংশ নেবেন ফিটনেস টেস্টে।

আকরাম খান বলেন, ‘সামনে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হলেও বিসিবির চোখ জানুয়ারিতে ওয়েস্টইন্ডিজ সিরিজে। এখন এই টুর্নামেন্টটাও যদি করতে পারি, ইনশাআল্লাহ আমরা ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হোস্ট করতে পারব। এই টুর্নামেন্ট দুইটা যদি ভালোভাবে করতে পারি, এর চেয়ে ভালো কিছু করে ইনশাআল্লাহ ওয়েস্ট ইন্ডিজ সিরিজটা করব।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »