সতীর্থরাও সাকিবের অপেক্ষায়

অবশেষে অপেক্ষার পালা শেষ হয়েছে। আজ থেকে মুক্ত বিহঙ্গ সাকিব আল হাসান। সব ধরনের ক্রিকেট খেলতে পারবেন। গতকাল শেষ হয়েছে তার নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ। ২০১৯ সালের অক্টোবরে ফিক্সিংয়ের প্রস্তাব গোপন করায় এক বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছিলেন।

মুক্ত সাকিব, এই দিনটির জন্য অপেক্ষায় ছিল কোটি কোটি ক্রিকেটপ্রেমী ও তার ভক্তরা। ক্ষণগণনার মতোই বাঁহাতি এই অলরাউন্ডারের প্রত্যাবর্তনের অপেক্ষা করছিলেন সবাই। এই তালিকায় বাদ যাচ্ছে না বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররাও। সতীর্থকে ফিরে পেতে উন্মুখ মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ-মুমিনুল হকরা।

গত বিশ্বকাপে ৬০৬ রান ও ১১ উইকেট নিয়েছিলেন সাকিব। বিশ্বকাপে অতিমানবীয় এই পারফরম্যান্সের পর ইনফর্ম সাকিবকে খুব বেশি সময় পায়নি বাংলাদেশ। অক্টোবরেই নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়েন তিনি। বাঁহাতি এই অলরাউন্ডারের মুক্ত হওয়ার খবরে খুশি বাংলাদেশের টি-২০ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ক্রিকইনফোকে তিনি বলেছেন, ‘আমাদের ছেলে ঘরে ফিরছে। যেটা আমাকে খুব আনন্দ দিচ্ছে। আমরা সবাই জানি অনেক বছর ধরে সাকিব বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সেরা খেলোয়াড়। ড্রেসিংরুমে তার ফেরার জন্য আমরা অধীরে আগ্রহে অপেক্ষা করছি। এটা ভেবে ভালো লাগছে যে আমরা তাকে দেখতে পাব, কথা বলব এবং তার সঙ্গে সময় কাটাতে পারব।’

মাঠে ফেরার পর সাকিব দ্রুতই ছন্দে ফিরে আসবেন বলে বিশ্বাস মাহমুদউল্লাহর। তিনি আরো বলেন, ‘সাকিব চ্যাম্পিয়ন খেলোয়াড়। আমার মনে হয় তার ছন্দে ফিরতে খুব বেশি সময় লাগবে না। আমি বিশ্বাস করি, যত দ্রুত সে ক্রিকেট মাঠে ফিরবে তত দ্রুতই ছন্দ ফিরে পাবে।’

আগামী ৪ নভেম্বর দেশে ফেরার কথা রয়েছে সাকিবের। বর্তমানে যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছেন তিনি। সাকিবকে ফিরে পাওয়া স্বস্তির বলে মন্তব্য করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। গতকাল সাংবাদিকদের তিনি বলেছেন, ‘উনি আমাদের জন্য অতি গুরুত্বপূর্ণ একজন খেলোয়াড়। তার ফেরা আমাদের জন্য স্বস্তির এবং আনন্দের বিষয়। আমরা আশা করব উনি যেভাবে অংশ নিয়েছেন জাতীয় দলে এবং বিভিন্ন টুর্নামেন্টে, তিনি সেভাবেই ফিরে আসবেন।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »