টেক্সাসে হারতে পারেন ট্রাম্প, আলো দেখছেন বাইডেন

মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আর পাঁচ দিন বাকি। শেষ মুহূর্তে এসে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীরা প্রচারণায় জোর দিচ্ছেন সুইং স্টেটগুলোতে (দোদুল্যমান রাজ্যে)। কারণ এসব রাজ্যেই জয়-পরাজয় নির্ধারিত হবে। কিন্তু ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড ৭ কোটির বেশি আগাম ভোট পড়েছে। এই বিপুলসংখ্যক ভোট বদলে দিতে পারে প্রার্থীদের সব হিসাবনিকাশ। হাতছাড়া হতে পারে নিশ্চিত জয় ভেবে নেওয়া অঙ্গরাজ্যও।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক খবরে বলা হয়েছে, বিপুলসংখ্যক আগাম ভোট পড়ায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের হাতছাড়া হতে পারে রিপাবলিকানদের রাজ্য হিসেবে পরিচিত টেক্সাস। ২০১৬ সালের নির্বাচনে এই টেক্সাসে ট্রাম্প পেয়েছিলেন ৫২ শতাংশ ভোট। অন্যদিকে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটন পেয়েছিলেন ৪৩ শতাংশ ভোট। এই রাজ্যে ইলেকটোরাল কলেজ ভোটের সংখ্যা ৩৮টি। এমন গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে হারলে ঘুরে দাঁড়ানো কঠিন হবে বর্তমান প্রেসিডেন্টের জন্য।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ডেমোক্র্যাটদের জন্য দীর্ঘদিন অধরা টেক্সাস জয়ের খুব কাছে জো বাইডেন। জনমত জরিপে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ও বাইডেনের মধ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের আভাস মিলছে। গত মঙ্গলবার পর্যন্ত টেক্সাসে প্রায় ৮০ লাখ আগাম ভোট পড়েছে, যা ২০১৬ সালে টেক্সাসে পড়া মোট ভোটের প্রায় ৯০ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের অন্য যে কোনো অঙ্গরাজ্যের চেয়ে টেক্সাসে আগাম ভোটের হার সবচেয়ে বেশি। টেক্সাসে দলীয়ভাবে ভোটাররা নিবন্ধিত হন না। এ কারণে বলা কঠিন আগাম ভোটে কে এগিয়ে রয়েছেন।

খবরে বলা হয়েছে, ১৯৭৬ সালের পর কোনো ডেমোক্র্যাট প্রেসিডেন্ট প্রার্থী টেক্সাসে জয়লাভ করেননি। এবার যদি বাইডেন টেক্সাসে জিততে পারেন, তাহলে ট্রাম্পের জয়ী হওয়ার আর সুযোগ থাকবে না! চার বছর আগে হিলারি রিপাবলিকান স্টেটে প্রচারণায় বেশি সময় দিয়ে ডেমোক্র্যাটদের শক্ত ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত রাজ্যে ট্রাম্পের কাছে হেরেছিলেন। এখন পর্যন্ত ডেমোক্র্যাট শিবির সুইং স্টেটগুলোতে সতর্কভাবে প্রচারণা চালাচ্ছে। একই সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ ‘রেড স্টেট’-এ প্রচারণা চালাচ্ছে। বাইডেনের রানিংমেট কমলা হ্যারিস আগামীকাল শুক্রবার টেক্সাসে প্রচারণা চালাবেন। ডেমোক্র্যাট বিলিওনিয়ার মাইকেল ব্লুমবার্গ টেক্সাস ও ওহাইয়োতে প্রচারণায় দেড় কোটি মার্কিন ডলার খরচ করার পরিকল্পনা করেছেন।

রাইস বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক মার্ক জোনস গত ১৩ থেকে ২০ অক্টোবর আগাম ভোট দিয়েছেন এমন ভোটারদের মধ্যে একটি জরিপ করেছেন। সেখানে দেখা গেছে, বাইডেন বড় ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন। অন্যদিকে ভোট দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে এমন সব মানুষের ওপর জরিপে প্রায় সমান ব্যবধানে এগিয়ে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। জোনস বলছেন, আগাম ভোটে স্পষ্টতই এগিয়ে রয়েছেন বাইডেন। এখন নির্বাচনের দিন রিপাবলিকানরা তাদের ভোটারদের টানতে পারবে কি না, সেটাই দেখার বিষয়। খবরে বলা হয়েছে, টেক্সাসে ডেমোক্র্যাটদের জয় অলীক কোনো স্বপ্ন নয়। বছর জুড়েই জরিপে ট্রাম্প-বাইডেন কাছাকাছি ব্যবধানে ছিলেন। স্বাধীন ভোটারদের মধ্যে ভালো অবস্থান তৈরি করেছেন বাইডেন, যাদের সংখ্যা টেক্সাসের মোট ভোটারের ১০ শতাংশ। যদিও রিপাবলিকানরা বলছেন, জলবায়ু ইস্যুতে বাইডেনের যে অবস্থান, তাতে টেক্সাসে ভালো করতে পারবেন না তিনি।

আবারও শঙ্কার কথা জানালেন ট্রাম্প: নির্বাচনের ফল নিয়ে আবারও শঙ্কার কথা জানিয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার দাবি, ডাকযোগে ব্যালটে দেওয়া লাখ লাখ ভোট গণনার জন্য অতিরিক্ত সময় দেওয়াটা বেআইনি। ৩ নভেম্বরেই বিজয়ীর নাম ঘোষণা করা উচিত। মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে সাংবাদিকদের তিনি বলেন, দুই সপ্তাহ ধরে ব্যালট গণনা না করে ৩ নভেম্বরেই বিজয়ীর নাম ঘোষণা করাটা যথার্থ কাজ হবে এবং তা খুব সুন্দর দেখাবে। দুই সপ্তাহ ধরে ব্যালট গণনা করাটা যথার্থ কাজ নয় এবং আমার বিশ্বাস, এটি আইনসম্মত নয়। ট্রাম্প বারবারই দাবি করে আসছেন, ডাকযোগে ভোট যত বেশি হবে, নির্বাচনে তত বেশি জালিয়াতি হবে। যদিও ট্রাম্প তার দাবির স্বপক্ষে কোনো প্রমাণ হাজির করতে পারেননি। বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে জালিয়াতির ঘটনা বিরল।

এদিকে ট্রাম্পের জন্য ভোট চাইতে এককভাবে নির্বাচনি প্রচারে নেমেছেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। মঙ্গলবার পেনসিলভানিয়ায় নির্বাচনি প্রচারে ট্রাম্পের প্রশংসা করেছেন তিনি। মেলানিয়া বলেন, ডোনাল্ড একজন লড়াকু। তিনি এই দেশকে ভালোবাসেন। আপনাদের জন্য তিনি প্রতিদিন লড়ছেন।

ট্রাম্পের প্রচারণা ওয়েবসাইটে হ্যাকারদের হানা: নির্বাচনের কাছাকাছি সময়ে এসে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রচারণা ওয়েবসাইট ২৫ মিনিটের জন্য হ্যাকারদের হাতে চলে গিয়েছিল। বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, এ সময় ওয়েবসাইট খুললে দেখা যেত বড় অক্ষরে লেখা একটি বার্তা- ‘এই সাইটটি জব্দ করা হয়েছে।’ এছাড়াও লেখা ছিল— ‘প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প প্রতিদিন যে মিথ্যা সংবাদ প্রচার করেছেন তা দেখে পৃথিবী ক্লান্ত।’ প্রেসিডেন্টের প্রচারণা টিমের এক পরিচালক জানান, এই হামলার উত্স তদন্তে আমরা আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সঙ্গে কাজ করছি। ওয়েবসাইটে তেমন কোনো গুরুত্বপূর্ণ তথ্য সংরক্ষিত ছিল না।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »