মুসলিম রাষ্ট্রে বসবাসরত নাগরিকদের সতর্ক করলো ফ্রান্স

ফ্রান্সে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-এর ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের কারণে ক্ষুব্ধ পুরো মুসলিম বিশ্ব। আর সে কারণেই মুসলিম রাষ্ট্রগুলোতে বসবাসরত নাগরিকদের সতর্ক করেছে ফ্রান্স সরকার। মঙ্গলবার দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতির মাধ্যমে এ সতর্কবার্তা প্রকাশ করে।

এতে বলা হয়, মুসলিম রাষ্ট্রে বসবাসরত কিংবা ভ্রমণে ইচ্ছুক ফ্রেঞ্চ নাগরিকদের বাড়তি সাবধানতার প্রয়োজন। সম্প্রতি ব্যঙ্গচিত্র প্রদর্শনের কারণে এসব রাষ্ট্রের নাগরিকরা ফ্রান্সের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে আছে। সেই রেশ আমাদের নাগরিকদের ওপর দিয়েও যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, বাংলাদেশ, ইন্দোনেশিয়া, ইরাক ও মাওরিতানিয়াতে যেসব ফ্রেঞ্চ নাগরিক আছেন তারা সতর্কতার সঙ্গে চলাচল করবেন। বিক্ষোভ ও আন্দোলন পরিহার করে চলাচল করাই আপনাদের জন্যে মঙ্গলজনক হবে। বিশেষ করে ভিড় এড়িয়ে চলতে হবে।

ঘটনার শুরু গত ১৬ অক্টোবর। সেদিন প্যারিসের রাস্তায় শিক্ষক স্যামুয়েল প্যাটিকে ‘আল্লাহু আকবর’ বলে হত্যা করেছিল এক তরুণ। কারণ, ওই শিক্ষক ক্লাসে মহানবী (সা.) এর কার্টুন দেখিয়ে মতপ্রকাশের স্বাধীনতার ব্যাখ্যা দিয়েছিলেন। শিক্ষকের ওপর হামলাকারী আবদৌলখ নামের ওই তরুণ ঘটনাস্থলেই পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছিলেন।

এই হত্যার পর ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেছেন, স্যামুয়েল প্যাটি নামের ওই শিক্ষককে খুন করার কারণ, ইসলামপন্থীরা আমাদের ভবিষ্যৎ কেড়ে নিতে চায়, কিন্তু ফ্রান্স কার্টুন প্রদর্শন বন্ধ করবে না। এর জবাবে কুয়েত, কাতার, জর্ডান, মরক্কোসহ বেশ কয়েকটি আরব দেশ ও তুরস্ক ফ্রান্সের পণ্য বর্জন করতে তাদের নাগরিকদের প্রতি আহ্বান জানায়।

সৌদি আরবও এই ঘটনার নিন্দা জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, সৌদি আরব সকল সন্ত্রাসী হামলা এবং এগুলোর জন্য দায়ীদের নিন্দা জানায়। ঘৃণা ও সহিংসতা উত্সাহিত করে এমন সব আচরণ ও কর্মকাণ্ড সৌদি আরব প্রত্যাখ্যান করে।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »