ট্রাম্পের ছবি প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউস

সম্প্রতি কোভিড-১৯ আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প। অতিরিক্ত সতর্কতা হিসেবে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। কিন্তু তারপরেও ট্রাম্পের স্বাস্থ্য নিয়ে আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।

এদিকে, ট্রাম্পের নতুন ছবি প্রকাশ করেছে হোয়াইট হাউস। স্থানীয় সময় শনিবারের ওই ছবিতে দেখা গেছে মেরিল্যান্ডের বেথেসডার ওয়াল্টার রিড ন্যাশনাল মিলিটারি মেডিক্যাল সেন্টারে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কাজ করছেন।

শুক্রবার থেকেই হাসপাতালে রয়েছেন তিনি। তবে হাসপাতালে থাকলেও নিজের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি নেননি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বরং সেখান থেকেই নিজের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন এই মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চিকিৎসক শন কনলি শনিবার শুরুর দিকে জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প চিকিৎসা গ্রহণের পর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হচ্ছে। হাসপাতাল থেকে সম্প্রতি একটি ভিডিও বার্তাও প্রকাশ করেছেন ট্রাম্প।

ওই ভিডিও বার্তায় ট্রাম্পকে বলতে শোনা গেছে যে, এখন অনেকটাই ভালো আছেন তিনি। যেখানে বসে ওই ভিডিও বার্তা ধারণ করা হয়েছে ওই একই ডেস্ক থেকে হোয়াইট হাউস নতুন কিছু ছবি প্রকাশ করেছে।

এসব ছবিতে দেখা গেছে ট্রাম্পের হাতে এবং টেবিলের ওপর বেশ কিছু ফাইলপত্র রাখা আছে। তিনি মনোযোগ দিয়ে সেগুলো দেখছেন। ট্রাম্প কেমন আছেন তা নিয়ে তার সমর্থক এবং বিশ্বের মানুষের মধ্যে শুরু থেকেই উৎকণ্ঠা দেখা দিয়েছে। কিন্তু হোয়াইট হাউসের এসব ছবির কারণে তার স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগ কিছুটা কমেছে।

শনিবার রাতে ট্রাম্প এক ভিডিও বার্তায় ট্রাম্প বলেন, ‘এখানে যখন এসেছিলাম তখন ভালো বোধ করছিলাম না। কিন্তু এখন আমার অবস্থা বেশ ভালো। সামনের দিনগুলোই হবে আসল পরীক্ষা, আমি আগামী দুইদিনে কী হয় সেটা দেখার অপেক্ষায় আছি।’ তিনি তার নির্বাচনী প্রচারণায় ফিরতে চাইছেন বলেও জানিয়েছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে আগামী নভেম্বরের ৩ তারিখ জো বাইডেনের মুখোমুখি হবেন ট্রাম্প। নির্বাচনের ঠিক ৩২ দিন আগে অসুস্থ হয়ে পড়ায় ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণাও বাধাগ্রস্থ হয়েছে। এমনকি নির্বাচনের আগে সুপ্রিম কোর্টের একজন নতুন বিচারক নিয়োগ দেয়া নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছে।

শনিবার সকালে ট্রাম্পের চিকিৎসক শন কনলি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ট্রাম্পের অক্সিজেন লাগেনি, তার জ্বরও ছিল না এ সময়ে। হোয়াইট হাউসের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, ট্রাম্পকে আরো কিছু দিন হাসপাতালে থাকতে হবে। এর আগে তাকে করোনার পরীক্ষামূলক ওষুধ রেমডেসিভির দেয়া হচ্ছিল।

ড. কনলিকে বেশ আশাবাদী শোনা গেছে ট্রাম্পের ব্যাপারে কিন্তু তিনি হাসপাতাল থেকে কবে ছাড়া পাবেন তা নিয়ে কোনো সুনির্দিষ্ট কথা বলেননি। আবার হোয়াইট হাউসের চিফ অফ স্টাফ মার্ক মিডোজ বলছেন, এখনো সুস্থতার পথে এগোননি ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় ট্রাম্পের অবস্থা বেশ উদ্বেগজনক মনে হয়েছে এবং আগামী ৪৮ ঘণ্টা আরও সংকটপূর্ণ হতে পারে। ট্রাম্পের বয়স এখন ৭৪ বছর এবং তিনি শারীরিকভাবে স্থূলদের ক্যাটাগরিতে পড়েন। এসব অবস্থা বিবেচনায় কোভিড-১৯ রোগের জন্য তাকে ঝূঁকিপূর্ণ বলে মনে করা হয়।

অর্থাৎ ডোনাল্ড ট্রাম্পের শারীরিক অবস্থা নিয়ে তার নিজের এবং তার চিকিৎসক ও হোয়াইট হাউস থেকে বিভিন্ন ধরনের বক্তব্য পাওয়া যাচ্ছে। এ নিয়ে বেশ বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »