মাস্ক না পরায় ক্ষমা চাইলেন বিজেপির মন্ত্রী

‘তিনি কখনো কোনো অনুষ্ঠানে মাস্ক পরেন না’-এ কথা গর্বের সঙ্গে জনসম্মুখে বলেছিলেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্র। এবার নিজের সুর পরিবর্তন করলেন বিজেপির এই নেতা। শুধু তাই নয়, তিনি বলেছেন, মাস্ক না পরে আমার ভুল হয়েছে। এখন থেকে মাস্ক পরব।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বুধবারও বলেছেন, ভবিষ্যৎ জীবনে সকলকে ফেস মাস্ক পরায় অভ্যস্ত হয়ে উঠতে হবে। অথচ তারই দলের নেতা নরোত্তম মিশ্র করোনা প্রতিরোধের নীতিতে মোদির ঠিক উল্টো। তিনি জোর গলায় দাবি করেন, ‘আমি কখনো কোনো অনুষ্ঠানে ফেস মাস্ক পরিনি।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী নরোত্তম মিশ্রের এই বক্তব্যে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়। মন্ত্রী হয়েও যদি সরকারি নিয়মকে উপেক্ষা করে মাস্ক পরতে অস্বীকার করেন, তাহলে সাধারণ মানুষ কেন গাইডলাইন মেনে চলবে? এই প্রশ্নে তীব্র সমালোচনা শুরু করে বিরোধীরা।

পরে চাপে পড়েই নিজেকে সংশোধন করেন মধ্য প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বিরোধী তোপ সামাল দিতে নরোত্তম বলেন, তার নিজের মেডিকেল কন্ডিশনের কারণেই বেশিক্ষণ ফেস মাস্ক পরে থাকতে পারেন না।

পরে চাপের মুখে পড়ে ক্ষমা চেয়ে নিয়ে তিনি বলেন, ‘মাস্ক পরা নিয়ে আমার বক্তব্য আইন ভঙ্গ করে। প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যের সঙ্গে তা মেলে না। আমি নিজের ভুল স্বীকার করে নিচ্ছি এবং দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি মাস্ক পরব। সবার কাছে আবেদন করব, তারা যেন মাস্ক পরেন এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলেন।’

এর আগে বুধবার ইন্দোরের এক অনুষ্ঠানে দেখা যায় ফেস মাস্ক না পরেই সেখানে উপস্থিত নরোত্তম মিশ্র। মধ্য প্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে মাস্ক ছাড়া অনুষ্ঠানে দেখে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। তিনি কেন মাস্ক না পরেই চলে এসেছেন-জানতে চাইলে জবাবে নরোত্তম বলেন, ‘আজ এখানে বলে নয়। আমি কখনো কোনো অনুষ্ঠানে ফেস মাস্ক পরে যায়নি। এতে কী যায় আসে।’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »