শিশু উন্নয়ন কেন্দ্র থেকে পালিয়ে গেল পেঁয়াজ চুরির মামলার কিশোর

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) বন্দি রাজু বিশ্বাস (১৬) হাসপাতালে থেকে পালিয়ছে। সোমবার দুপুরের দিকে যশোর জেনারেল হাসপাতালের আউটডোরে তাকে চিকিৎসা সেবা দেয়ার জন্যে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল।

পলাতক রাজু ফরিদপুর জেলার বোয়ালমারী উপজেলার দেবকিনন্দপুর গ্রামের আব্দুল ওহাব বিশ্বাসের ছেলে। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) হয়েছে।

যশোের শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের মেডিকেল সহকারী নজির আহমেদ জানান, সকালে বন্দি রাজু বিশ্বাসকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাই। তাকে হাসপাতালের ডাক্তার সোলায়মান কবীরকে দেখিয়ে ওষুধ কিনতে যাই। ওইসময় রাজুকে কেন্দ্রের মাইক্রোবাসের ভেতরে রেখে বাইরে থেকে লক করে রাখা হয়। ফিরে এসে দেখি সে গাড়িতে নেই। ভেতর থেকে লক খুলে সে পালিয়ে গেছে।

যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের (বালক) তত্ত্বাবধায়ক (সহকারী পরিচালক) জাকির হোসেন সাংবাদিকদের বলেন, আমাদের কর্মীরা বাসস্ট্যান্ড, টার্মিনাল, রেলস্টেশনসহ বিভিন্নস্থানে তাকে খুঁজছে। এ বিষয়ে কোতোয়ালি থানায় একটি জিডি করা হয়েছে।

তিনি জানান, তিন সপ্তাহ আগে (১১ সেপ্টেম্বর) পেঁয়াজ চুরির একটি মামলায় ফরিদপুর থেকে ওই কিশোরকে যশোর কেন্দ্রে পাঠানো হয়। তার বুকে ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট হচ্ছিল। এ কারণে সোমবার সকালে কেন্দ্রের কর্মীদের সঙ্গে তাকে যশোর জেনারেল হাসপাতালে একজন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের কাছে পাঠানো হয়।

যশোর শহরতলীর পুলেরহাটে শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রটি অবস্থিত। গত ১৩ আগস্ট সেখানে তিন বন্দিকে পিটিয়ে হত্যা করে কর্মকর্তা ও কয়েকজন বন্দি। সেই ঘটনার পর দায়িত্বরত বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। হত্যা মামলাও চলমান।

হত্যাকাণ্ড ছাড়াও কেন্দ্রটি থেকে ‘বন্দি’ পালানোর ঘটনা এর আগেও বেশ কয়েকবার ঘটেছে। দুর্নীতি, অনিয়ম, দায়িত্বে অবহেলার কারণে সমাজসেবা অধিদপ্তর পরিচালিত কেন্দ্রটিতে নানা অঘটন ঘটে বলে এর আগে একটি ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি জানিয়েছিল।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »