ধোনিদের বাঁচাতে ছুটি থেকে ফিরছেন রায়না?

আইপিএলের প্রথম সপ্তাহে বেশ ব্যস্ত ছিল চেন্নাই সুপার কিংস। ১৯ সেপ্টেম্বরে শুরু হওয়া টুর্নামেন্টে ২৫ তারিখের মধ্যেই তিন ম্যাচ খেলে ফেলেছে মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। উদ্বোধনী ম্যাচে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ানসকে হারিয়ে শুরু হলেও পরের দিনগুলো অবশ্য হতাশামাখা। টানা দুই ম্যাচে হেরে মাত্র ২ পয়েন্ট নিয়ে আট দলের মধ্যে পাঁচে আছে তারা।

টানা দুই হারের চেয়েও চেন্নাইকে বিব্রত করছে হারের ধরনটা। টানা দুই ম্যাচেই দলের হয়ে যা একটু ফাফ ডু প্লেসিই লড়েছেন। মিডল অর্ডারে দায়িত্ব নিয়ে খেলতে পারছেন না আর কেউ। মিডল অর্ডার দ্রুত রান তুলতে না পারায় স্লগ ওভারে লোয়ার মিডল অর্ডারের সামনে অসম্ভব সব লক্ষ্য এসে পড়ছে। প্রথম ম্যাচে ম্যাচ জেতানো ইনিংস খেলা আম্বাতি রাইডু চোটে দলটির মিডল অর্ডারের কঙ্কাল বেরিয়ে পড়েছে। সে ফাঁক আড়াল করতে তাই শেষ প্রচেষ্টা হিসেবে সুরেশ রায়নাকে ফেরানোর চিন্তাভাবনা করছে তারা।

চেন্নাইয়ের জন্য এ মৌসুমে শুরুতেই বড় ধাক্কা হয়ে এসেছে রায়নার অনুপস্থিতি। দলের সঙ্গে খেলার জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতেও গিয়েছিলেন রায়না। কিন্তু পারিবারিক জীবনে ভয়াবহ এক বিপর্যয় নেমে এলে দলকে রেখে দেশে ফিরেছেন সদ্য জাতীয় দল থেকে অবসর নেওয়া ব্যাটসম্যান। প্রতি মৌসুমেই যার ব্যাট থেকে প্রায় চার শর ওপরে রান পাওয়া যায়, এমন ব্যাটসম্যানের অভাব পূরণ করার মতো মিডল অর্ডার গড়তে পারেনি চেন্নাই।

মাঝে খবর এসেছিল, ফ্র্যাঞ্চাইজি ও রায়নার সম্পর্কে ফাটল দেখা দিয়েছে। আর এ কারণেই পারিবারিক বিপর্যয় সামলে ওঠার সময় পেয়েও রায়না দলের সঙ্গে যোগ দিচ্ছেন না। রায়না অবশ্য এমন গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন। দলের বিপদে তাই রায়নাকে ফেরানো হতে পারে, এমন কথা শোনা যাচ্ছে। যদিও রায়নাকে ফেরানো হবে কি না, এমন প্রশ্নে নিজের অসহায়ত্বের কথা আগেই জানিয়েছেন দলের মালিক এন শ্রীনিবাসন, ‘দেখুন, এটা আমার এখতিয়ারে নেই। আমরা একটা দলের মালিক, ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিক। কিন্তু আমরা খেলোয়াড়দের কিনে ফেলিনি। আমি দলের অধিনায়কও নই…সর্বকালের সেরা অধিনায়ক আমাদের দলে। তাহলে আমি কেন ক্রিকেটীয় ব্যাপারে মাথা ঘামাতে যাব?

টানা তিন ম্যাচে দলের হাল ধরেছেন ফাফ ডু প্লেসি।

টানা তিন ম্যাচে দলের হাল ধরেছেন ফাফ ডু প্লেসি। 
ছবি: আইপিএল

টানা দুই হারের পর আবারও রায়নার প্রসঙ্গ তোলা হয়েছিল। এবারও ‘না’ সূচক উত্তর দিয়েছেন শ্রীনিবাসন, ‘দেখুন আমরা রায়নার জন্য বসে থাকতে পারি না, কারণ সে নিজেই নিজেকে সরিয়ে নিয়েছে। দল তাঁর এ সিদ্ধান্তকে সম্মান করে। আমরা এ নিয়ে ভাবছি না। ক্রিকেট বিশ্বের অন্যতম সেরা সমর্থক আমাদের এবং আমি তাদের সবাইকে নিশ্চয়তা দিচ্ছি, আমরা ঘুরে দাঁড়াব। এটা একটা খেলা, এখানে ভালো দিন আসবে, বাজে দিনও আসবে। ছেলেরা জানে ওদের কী করতে হবে এবং সবার মুখেই হাসি ফিরবে।

তাহলে তো রায়নাকে এবারের আইপিএলে দেখার আশা ছেড়ে দিতেই পারেন চেন্নাই সমর্থকেরা। কিন্তু বাস্তবতা হলো, রায়না নাকি নিজেই ফেরার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তাঁর এক ঘনিষ্ঠ সূত্র ইন্ডিস্পোর্টসকে বলেছেন, ‘এ দিকে (পারিবারিক ঝামেলা) সবকিছু সে গুছিয়ে এনেছে, এখন সিএসকে দলের সঙ্গে যোগ দিতে চায়।’ ভারতীয় অন্যান্য সংবাদমাধ্যমের খবর যদি সত্যি হয়ে থাকে, তবে খুব দ্রুত সংযুক্ত আরব আমিরাতে দেখা যাবে রায়নাকে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডও বলে দিয়েছে, যদি চেন্নাই চায়, তাহলে রায়নাকে খেলতে দিতে কোনো বাধা নেই তাদের পক্ষ থেকে।

তবে আইপিএলের জন্য উড়াল দিলেই রায়নাকে পাবে না চেন্নাই। ভারতীয় বোর্ড এটাও জানিয়ে দিয়েছে, যেহেতু আবার নতুন করে দলের সঙ্গে যোগ হবেন রায়না, তাঁকে নির্দিষ্ট সময় কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অর্থাৎ রায়না আমিরাতে পা রাখার পর অন্তত ৭-৮ দিন অপেক্ষা করতে হবে চেন্নাইকে। ধোনিদের জন্য খুশির সংবাদ, চতুর্থ ম্যাচের আগে ছয় দিন ফাঁকা পাচ্ছেন তাঁরা।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »