নারায়ণগঞ্জে বিস্ফোরণের জন্য অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ দায়ী : তিতাসের প্রতিবেদন

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বাইতুস সালাত মসজিদে বিস্ফোরণের জন্য স্থানীয়দের অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগ দায়ী। একইসঙ্গে মসজিদের নির্মাণকাজে ত্রুটি ছিল। যার কারণে মাটির নিচের পাইপের ছিদ্র থেকে মসজিদের ভেতরে গ্যাস জমা হয়। আর ওই গ্যাস থেকেই বিস্ফোরণ ঘটে।

দুর্ঘটনার কারণ তদন্তে ঘটিত তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (টিজিটিডিসিএল) প্রতিবেদনে এ তথ্য দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাজধানীতে সচিবালয়ে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে এ প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়। ওই প্রতিবেদনে স্থানীয়ভাবে কারা অবৈধ সংযোগ নেয়ার কারণে দুর্ঘটনা হয়েছে তা উল্লেখ রয়েছে। তবে অবৈধ গ্যাস ও বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য সরকারি সংস্থা তিতাস গ্যাস কোম্পানি এবং ঢাকা পাওয়ার ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানির (ডিপিডিসি) দায়-দায়িত্ব আছে কিনা এবং এতে এ দুই সরকারি কোম্পানির কোন কোন কর্মকর্তা-কর্মচারী জড়িত তা উল্লেখ করা হয়নি।

তদন্ত প্রতিবেদন সম্পর্কে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, তিতাসের প্রতিবেদনে দুর্ঘটনার কারণ উল্লেখ করা হয়েছে। এ ঘটনার কারণসহ অন্যান্য বিষয়গুলো মন্ত্রণালয় আরও খতিয়ে দেখবে। এ প্রতিবেদনই শেষ নয়। এ দুর্ঘটনায় কেউ দায়-দায়িত্ব এড়াতে পারবে না। সরকারের কোম্পানি কিংবা গ্রাহক-যার দায় তাকেই বহন করতে হবে। ভবিষ্যতে যেন এ ধরণের দুর্ঘটনা না ঘটে সেজন্য বিতরণ ও সার্ভিস পাইপলাইন নিয়মিত পরিদর্শন, পরীক্ষা ও রক্ষণাবেক্ষণে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা উপজেলার পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণে অর্ধশতাধিক মানুষ দগ্ধ হন। তাদের মধ্যে শিশুসহ ৩১ জন মারা যান। মসজিদের এসি বিস্ফোরিত হয়। থাইগ্লাসের জানালা উড়ে যায় এবং দেয়াল ক্ষতিগ্রস্ত হয়। বিস্ফোরণজনিত এ দুর্ঘটনা তদন্তে তিতাস গ্যাসের মহাব্যবস্থাপক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রকৌশলী মো. আবদুল ওহাবকে আহ্বায়ক করে ৫ সদস্যের তদন্ত কমিটি গত ৫ সেপ্টেম্বর গঠন করা হয়। বৃহস্পতিবার ওই প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া হয়।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »