‘বানর’ ডাকায় থাপ্পড়, লাল কার্ড দেখলেন নেইমার

খেলার মাঠ থেকেও যায়নি বর্ণবাদ। যার প্রমাণ আবারও দেখলো ফুটবল বিশ্ব। এবার বর্ণবাদের খোদ শিকার হলেন পিএসজির ব্রাজিলীয় সুপারস্টার নেইমার জুনিয়র। পিএসজি-মার্শেইয়ের ম্যাচে এই ঘটনাটি ঘটে।

গতকাল রোববার রাতের এই ম্যাচে মার্শেইয়ের আলভারো গঞ্জালেজের মাথায় পেছন থেকে থাপ্পড় মেরে দ্বিতীয় হলুদ কার্ড দেখে মাঠ ছেড়েছেন নেইমার। ম্যাচ শেষে ব্রাজিলীয় সুপারস্টার দাবি করেছেন, মাঠে তার কাছ থেকে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হয়েছেন তিনি।

টুইটারে করা পোস্টে গঞ্জালেজের শাস্তিও দাবি করেছেন ব্রাজিলীয় ফুটবলার। ম্যাচের পরে নেইমার গঞ্জালেজকে উদ্দেশ্য করে টুইটারে লিখেছেন, ‘আমার একমাত্র আফসোস ওর পেছনে ঘুষি না মেরে সামনে মারতে না পারা।’

এই ম্যাচে রেফারি নেইমারসহ দুই দলের মোট ৫ জন খেলোয়াড়কে দেখিয়েছেন লাল কার্ড। সব মিলিয়ে পুরো ৯০ মিনিটে রেফারিকে হলুদ কার্ডই দেখাতে হয়েছে মোট ১৭ বার। যুদ্ধ-যুদ্ধ ম্যাচ ঘরের মাঠে মার্শেইয়ের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে পিএসজি। এই নিয়ে লিগে টানা দ্বিতীয় ম্যাচ হারল চ্যাম্পিয়নরা।

 

ম্যাচের পর দুই ঘণ্টার ব্যবধানে নেইমার টুইট করেছেন দুটি। প্রথম টুইটে লিখেছেন, ‘আমার একটাই আফসোস ওর মুখে মারা উচিত ছিল ঘুষিটা।’ প্রথম টুইটটি নেইমার করেছিলেন ম্যাচ শেষের পরপর। এর প্রায় আরও বেশ কিছুক্ষণ পর নেইমার গঞ্জালেজের শাস্তি দাবি করেছেন। সমালোচনা করেছেন ভিএআরেরও।

তিনি লিখেছেন, ‘ভিএআর দিয়ে আমার সিংস্রতা বিচার করা সহজ। এখন আমি চাই যে বর্ণবাদী আমাকে মাঠে বানর বলে গালি দিল, তার ছবিটাও সামনে আসুক। এরপর? আমি রেইনবো ফ্লিক করলে, আমাকে শাস্তি দেওয়া হয়। আমি থাপ্পড় দিলে মাঠ থেকে বের করে দেওয়া হয়। ওদের কী হবে? এখন ওদের কী হবে?’

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »