২৩৮ দিন অনশনের পর তুর্কি আইনজীবীর মৃত্যু

সন্ত্রাসবাদী একটি গোষ্ঠীর সঙ্গে আঁতাতের অভিযোগে শাস্তি পাওয়ার পর ন্যায় বিচারের দাবিতে ২৩৮দিন অনশনে থাকার পর মৃত্যুবরণ করলেন তুরস্কের এক নারী আইনজীবী। আজ বৃহস্পতিবার ইস্তাম্বুলের একটি হাসপাতালে এব্রু তিমতিক নামের ওই আইনজীবীর মৃত্যু হয়।

বার্তা সংস্থা এএফপি’কে ওই আইনজীবীর বন্ধুরা জানান, দীর্ঘ অনশনে থাকার পর মৃত্যুকালে তার ওজন হয়েছিল মাত্র ৩০ কেজি।

তিমতিকের মৃত্যুতে সরকারের তীব্র সমালোচনা করেছে বিরোধী দল ও মানবাধিকার সংস্থাগুলো। তার মৃত্যুতে হত্যা বলে উল্লেখ করেছে তুরস্কের বামপন্থী আইনজীবীদের সংগঠন পিপল ল ব্যুরো।

সংগঠনটির টুইটারে বলা হয়েছে, ‘২৩৮ দিন অনশনে থেকে এব্রু তিমতিকের মৃত্যুবরণ করার ঘটনা একটি হত্যা।’

২০১৮ সালে সেপ্টেম্বরে গ্রেপ্তার হওয়া তিমতিমককে ১৩ বছর ছয় মাসের সাজা দেয় আদালত। এই বিচারের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে এই নারী আইনজীবীসহ বেশ কয়েকজন আইনজীবী ফেব্রুয়ারি মাসে অনশনে যান। সেই প্রতিবাদের মধ্যেই মৃত্যু হলো তিমতিকের।

বাম মতাদর্শী আইনজীবীদের অন্যতম সংগঠন কন্টেমপরারি লয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন (সিএইচডি) সদস্য ছিলেন এব্রু তিমতিক। এটি অতি মার্কসবাদী সংগঠন পিপলস লিবারেশন পার্টি-ফ্রন্ট- ডিএইচকেপি-সি’র অঙ্গসংগঠন।

ডিএইচকেপি-সি’র বিরুদ্ধে অভিযোগ তুরস্কে বেশ কয়েকটি ভয়াবহ হামলার পেছনে হাত রয়েছে তাদের। তুর্কি সরকারের দাবি, ২০১৩ সালে আঙ্কারায় মার্কিন দূতাবাসে যে হামলার ঘটনা ঘটেছিল তাতেও এই সংগঠনটি জড়িত ছিল।

সন্ত্রাসী গ্রুপ কার্যক্রম চালানো এবং সন্ত্রাসী দলের সঙ্গে সম্পৃক্ততার অভিযোগে ২০১৯ সালে তিমতিকসহ ১৮ আইনজীবীকে বিভিন্ন মেয়াদের সাজা দেয় ইস্তাম্বুলের একটি আদালত।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »