ফের করোনা সংক্রমণের কবলে দক্ষিণ কোরিয়া

করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ার পর বিভিন্ন দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম বড় হটস্পট ছিল দক্ষিণ কোরিয়া। দেশটির দেগু সিটি নামের একটি এলাকার এক গীর্জা থেকে গত ফেব্রুয়ারিতে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাসটি।

মার্চ থেকে দেশটিতে করোনার প্রকোপ বেশ ভালোভাবেই বাড়তে থাকে। সেই অবস্থান থেকে বিচক্ষণ পদক্ষেপ নিয়ে সাফল্য অর্জন করে মুন জায়ে ইনের সরকার। তবে গতকাল শুক্রবার থেকে ফের দেশটিতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শুরু হয়েছে।

নতুন করে ভাইরাস ছড়ানোয় দেশটির সাধারণ নাগরিকের পাশাপাশি প্রবাসীরাও বেশ শঙ্কায় রয়েছেন। গত পাঁচ মাসে দুটি ধাপে করোনার ক্লাস্টার সংক্রমণ দেখা দেয়। প্রথম ধাপে বিদেশিদের মাধ্যমে করোনা ছড়িয়ে পড়ে। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এর সংখ্যা ছিল ব্যাপক। গত ২৪ ঘণ্টায় ফের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পর ১০০ জনের শরীরে ভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে।

কোরিয়া সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোলের (কেসিডিসি) তথ্যমতে, নতুন করে সংক্রমণের শতকরা ৭৫ ভাগ বিদেশিদের মাধ্যমে ছড়িয়েছে। ৫০ ভাগ সংক্রমণ ছড়িয়েছে বুসানের গামছন বন্দরে অবস্থানরত রাশিয়ান কার্গো জাহাজ থেকে।

গত ১৮ আগস্ট দেশটিতে নতুন করে করোনা ছড়ালে কাজাখস্তান, ফিলিপাইন, ইউক্রেন, মলডোবা, চেকিয়া, যুক্তরাষ্ট্র, কানাডা ও ব্রাজিলসহ মোট ১২ জনের শরীরে ভাইরাসটির উপস্থিতি পাওয়া যায়। গতকাল শুক্রবার দেশটিতে আরও ৩২৪ জন এ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হয়। পাঁচ মাসের মধ্যে এটি ছিল ২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ আক্রান্তের রেকর্ড। কোরিয়া সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল বলছে, আক্রান্তদের শতকরা নব্বই ভাগ রাজধানী সিউলের বাসিন্দা।

Rupantor Television

A IP Television Channel

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »